Print Date & Time : 9 May 2021 Sunday 1:32 pm

পিডিদের প্রকল্প এলাকায় অবস্থানের তাগিদ শিল্পমন্ত্রীর

প্রকাশ: March 1, 2021 সময়- 01:15 am

নিজস্ব প্রতিবেদক: শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেছেন, প্রকল্প পরিচালদের নিজ নিজ প্রকল্প এলাকায় অবস্থান করতে হবে এবং কাজের গতি বাড়াতে হবে। প্রকল্প বাস্তবায়নে যেসব নির্দেশনা রয়েছে, সে আলোকে প্রকল্পগুলো পরিচালিত হতে হবে। দপ্তর ও সংস্থার প্রধানদের প্রকল্প এলাকা সরেজমিন পরিদর্শন কার্যক্রম বাড়াতে হবে। কভিড-১৯ সময়ে প্রকল্প বাস্তবায়নে যে ধীরগতি ছিল, কাজের গতি বাড়িয়ে তা পূরণ করতে হবে।

শিল্পমন্ত্রী গতকাল ২০২০-২১ অর্থবছরে শিল্প মন্ত্রণালয়ের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে অন্তর্ভুক্ত প্রকল্পগুলোর বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। শিল্প মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন। শিল্প সচিব কেএম আলী আজমের সভাপতিত্বে সভায় মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বিভিন্ন সংস্থা ও করপোরেশনের প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় বিভিন্ন প্রকল্পের পরিচালকরা ভার্চুয়াল মাধ্যমে সংযুক্ত ছিলেন।

সভায় জানানো হয়, ২০২০-২১ অর্থবছরে শিল্প মন্ত্রণালয়ের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে মোট ৪৮টি উন্নয়ন প্রকল্প রয়েছে। এর মধ্যে ৪৪টি বিনিয়োগ প্রকল্প, তিনটি কারিগরি সহায়তা এবং একটি নিজস্ব অর্থায়নে বাস্তবায়িত প্রকল্প রয়েছে। সব মিলিয়ে এসব প্রকল্পে বরাদ্দের পরিমাণ তিন হাজার ৪০৭ কোটি ৬৬ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে জোগান দেয়া হবে এক হাজার ২৭৭ কোটি ২৮ লাখ টাকা, প্রকল্প ঋণ সহায়তা দুই হাজার ৯৬ কোটি ৮০ লাখ টাকা এবং সংস্থার নিজস্ব অর্থায়ন ৩৩ কোটি ৫৮ লাখ টাকা। চলতি বছরের জানুয়ারি পর্যন্ত প্রকল্পগুলোর বিপরীতে এক হাজার ১২০ কোটি ৭৩ লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে বলে সভায় তথ্য প্রকাশ করা হয়। সভায় জানানো হয়, শিল্প মন্ত্রণালয়ের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির অগ্রগতি ৩২ দশমিক ৮৯ শতাংশ, যা জাতীয় পর্যায়ের অগ্রগতির চেয়ে বেশি (জাতীয় পর্যায়ের অগ্রগতি ২৮ দশমিক ৪৫ শতাংশ)।

সভায় আরও জানানো হয়, রাসায়নিক গুদাম নির্মাণ প্রকল্পের প্রথম পর্যায়ে সাতটি গুদাম নির্মাণ চলতি মাসে শেষ হবে। এছাড়া প্রকল্পের বাকি গুদাম নির্মাণকাজ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সম্পন্ন হবে। সভায় জানানো হয়, চলতি বছরের জুনের মধ্যে শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন মোট ৪৮টি প্রকল্পের মধ্যে ১৪টি প্রকল্পের কার্যক্রম সম্পন্ন হবে। সভায় মন্ত্রণালয়ের পরিবীক্ষণ দলের পরিদর্শনকৃত চারটি প্রকল্পের প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হয়।

শিল্প প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রকল্পের কাজের গুণগত মান ঠিক রেখে নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই কাজ শেষ করতে প্রকল্পে কাজের তদারকি বাড়াতে হবে। সার সংরক্ষণ ও বিতরণের সুবিধার জন্য বাফার গোডাউনের নির্মাণকাজ দ্রুত শেষ করার তাগিদ দেন তিনি। প্রকল্পের কাজের গতি বাড়াতে মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পনা শাখার সঙ্গে দপ্তর ও সংস্থার সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখার ওপর গুরুত্ব দেন তিনি।

সভাপতির বক্তব্যে শিল্পসচিব কেএম আলী আজম বলেন, সভায় যেসব সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে, তা বাস্তবায়নে সবাইকে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে।