প্রচ্ছদ প্রথম পাতা

‘পুঁজিবাজার উন্নয়নে সরকার আন্তরিক’

নিজস্ব প্রতিবেদক: পুঁজিবাজার উন্নয়নে সরকার খুবই আন্তরিক এবং আগ্রহী এমন মন্তব্য করে বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমবিএ) সভাপতি ছায়েদুর রহমান। তিনি বলেছেন, পুঁজিবাজারের উন্নয়নের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ ইতোমধ্যে সরকারের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে এবং ভবিষ্যতেও নেওয়া হবে।

পুঁজিবাজার উন্নয়নে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের উদ্যোগে গঠিত সমন্বয় ও তদারকি কমিটির সঙ্গে গতকাল  জরুরি  বৈঠক করে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন ছায়েদুর।

অতিরিক্ত সচিব মাকসুরা নূরের সভাপতিত্বে ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে বাংলাদেশ ব্যাংক, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি), ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ এবং বিএমবিএ’র প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

ছায়েদুর রহমান বলেন, বৈঠকে পুঁজিবাজারের বর্তমান অবস্থা এবং ভবিষ্যৎ উন্নয়নের বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। আলোচনার বিষয়গুলো উনারা (পুঁজিবাজার সমন্বয় ও তদারকি কমিটি) সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টিতে আনবেন এবং তার ওপর ভিত্তি করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ পদক্ষেপ নেবেন। একটা বিষয় উনারা স্পষ্টভাবে বলেছেন পুঁজিবাজার উন্নয়নে সরকার খুবই আন্তরিক এবং আগ্রহী। পুঁজিবাজারের উন্নয়নের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ ইতোমধ্যে সরকারের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে এবং ভবিষ্যতে নেওয়া হবে’ বলেন বিএমবিএ সভাপতি। বৈঠকে কোন কোন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, বাজারের সার্বিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তারা আমাদের অভিজ্ঞতা জানতে চেয়েছে। আমরা বাজারে ফান্ডের সরবরাহ বৃদ্ধির কথা বলেছি। এ বিষয়ে সবাই একমত হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে সবাই কাজ করছেন।

এর আগে গত রোববার বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গ বৈঠক করে ছায়েদুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, পুঁজিবাজারে তারল্য বাড়াতে ফান্ডের বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক ইতিবাচক মনোভাব দেখিয়েছেন। গতকাল সোমবারের বৈঠক থেকে বেরিয়েও এ বিষয়ে কথা বলেন বিএমবিএ সভাপতি। তিনি বলেন, ফান্ডের বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে আমাদের আলোচনা হয়েছিল। তারা খুবই আন্তরিক।

এ সময় সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে প্রশ্ন করা হয় আপনারা বলছেনÑফান্ডের বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক আন্তরিক। কিন্তু বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে বলা হচ্ছে ফান্ডের বিষয়ে কথা হয়নি, পুঁজিবাজারে তারল্য বাড়ানোর বিষয়ে কথা হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিনিধিরা এ বৈঠকে উপস্থিতি ছিলেন এ বিষয়ে কোনো কথা হয়েছে কি?

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমরা কিন্তু এমাউন্ট নিয়ে কথা বলছি না। আমরা বলছি অর্থের জোগান বৃদ্ধি করতে হবে। এর জন্য আমরা একটা প্রস্তাব দিয়েছিলাম। কিন্তু যারা বাস্তবায়ন করবেন তারা তো তাদের প্রচলিত নিয়মকানুন যাচাই-বাছাই করে পদক্ষেপ নেবেন। এখানে আমাদের শব্দ এবং ওনার শব্দের মধ্যে পার্থক্য খুঁজলে তো হবে না। নিয়ন্ত্রক সংস্থার ভিউ, আর আমাদের ভিউ কিন্তু পুরোপুরি একরকম হবে না।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন
ট্যাগ »

সর্বশেষ..