কৃষি কৃষ্টি

পুষ্টিগুণে ঠাসা ফুলকপি

ফুলকপি শীত ও গ্রীষ্মকালÑদুই আবহাওয়াতে জšে§। তবে এটি মূলত শীতপ্রধান সবজি। সুস্বাদু এ সবজিটি দিয়ে তরকারির পাশাপাশি স্যুপ ও বড়া তৈরি করা হয়। পুষ্টিগুণে অনন্য এটি।

পুষ্টি উপাদান

ফুলকপিতে রয়েছে ভিটামিন ‘এ’, ‘বি’, ‘সি’ ও ‘কে’। এসব উপাদান মানব দেহের ভিটামিনের চাহিদা পূরণ করে। আরও রয়েছে আয়রন, সালফার, ফসফরাস, ম্যাগনেসিয়াম, পটাসিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ ও আঁশ।

উপকারিতা

স     ফুলকপিতে উপস্থিত সালফারযুক্ত সালফোরাফেন উপাদানটি ক্যানসার সেল ধ্বংস করে। এছাড়া যে কোনো টিউমারের বৃদ্ধি প্রতিরোধে সহায়ক

স     ফুলকপির সালফোরাফেন রক্তচাপ কমায় ও রক্তপ্রবাহ সচল রেখে হƒৎযন্ত্র সুস্থ রাখে

স     আঁশ ও সালফারসমৃদ্ধ ফুলকপি পরিপাকে সহায়ক

স     স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি ও সচল রাখতে এর ভিটামিন ‘বি’ ও ‘বি কমপ্লেক্স কলিন’ অনেক উপকারী। এছাড়া ফুলকপি মস্তিষ্কের দুর্বলতা ও স্মৃতিবিভ্রম সমস্যায় বেশ সহায়ক

স     ফুলকপিতে উপস্থিত ভিটামিন ‘এ’ ও ‘সি’ শীতকালীন ঠাণ্ডা জ্বর, সর্দি, কাশি ও টনসিলের প্রদাহ কমাতে সাহায্য করে

স     সবজিটি কোলেস্টেরলমুক্ত। তাই শরীর গঠনে কার্যকর ভূমিকা রাখে

স     ফুলকপির আয়রন শরীরে রক্ত বাড়ায়। গর্ভবতী মা ও বাড়ন্ত শিশুর আয়রনের চাহিদা মেটাতে তাই ফুলকপি একটি ভালো সবজি।

হ কৃষি-কৃষ্টি ডেস্ক

সর্বশেষ..