পেরুতে ভূমিকম্পে বহু ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত

শেয়ার বিজ ডেস্ক: দক্ষিণ আমেরিকার দেশ পেরুতে সাত দশমিক পাঁচ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প হয়েছে। স্থানীয় সময় রোববার দেশটির উত্তরাঞ্চলে এ কম্পন অনুভূত হয়। ভূমিকম্পে প্রাণহানির খবর পাওয়া না গেলেও বহু বাড়িঘর বিধ্বস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। খবর: রয়টার্স, এএফপি।

মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা জানিয়েছে, রোববার পেরুর বারানসা শহর থেকে ৪২ কিলোমিটার (২৫ মাইল) দূরে ভূমিকম্পটি অনুভূত হয়। প্রাথমিকভাবে ভূমিকম্পে কোনো ক্ষয়ক্ষতি বা হতাহতের খবর জানা যায়নি। ভূমিকম্পের সময় পেরুর রাজধানী লিমা থেকেও কম্পন অনুভূত হয়।

ভূমিকম্পের গভীরতা ছিল ১১২ দশমিক পাঁচ কিলোমিটার (৬০ মাইল)। ইউরো-ভূমধ্যসাগরীয় সিসমোলজিক্যাল সেন্টার এক টুইটে জানিয়েছে, আমাজন চিরহরিৎ বনের যে অঞ্চলে ভূমিকম্প হয়েছে, সেখানে লোকসংখ্যা খুবই কম।

এদিকে ভূমিকম্পের পর প্রাণহানির কোনো খবর পাওয়া যায়নি। তবে ১০ জন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে এএফপি। এছাড়া শক্তিশালী এ ভূমিকম্পে ৭৫টি বাড়ি-ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। বিধ্বস্ত স্থাপনাগুলোর মধ্যে একটি চার্চ টাওয়ারও রয়েছে। শক্তিশালী এ ভূমিকম্পের ঘটনায় দক্ষিণ আমেরিকার এ অঞ্চলজুড়ে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে।

পেরুর জিওফিজিক্যাল ইনস্টিটিউটের তথ্য অনুযায়ী, রোববার স্থানীয় সময় সকাল ৫টা ৫২ মিনিটে দেশটিতে সাত দশমিক পাঁচ মাত্রার এ ভূমিকম্প আঘাত হানে। এর গভীরতা ছিল ভূপৃষ্ঠ থেকে ১৩১ কিলোমিটার (৮১ মাইল)।

দেশটির সিভিল ডিফেন্স কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ভূমিকম্পের কারণে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন এবং ৭৫টি ঘরবাড়ি ধ্বংস হয়ে গেছে। এছাড়া ভূমিকম্পের কারণে পার্শ্ববর্তী দেশ ইকুয়েডরেও ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

এএফপি বলছে, ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল পেরুর ছোট শহর সান্তা মারিয়া দ্য নিয়েভা থেকে ৯৮ কিলোমিটার পূর্বে। ওই এলাকাটি মূলত পেরুর আমাজন অঞ্চল এবং সেখানে আমাজনের আদিবাসী সম্প্রদায় বসবাস করে থাকে। সান্তা মারিয়া দ্য নিয়েভা শহরের মেয়র হেক্টর রেকুয়েজো জানান, অনেক শক্তিশালী ভূমিকম্প হয়েছে। এর ফলে কাঠের ঘরসহ বেশ কিছু বাড়িঘর ভেঙে পড়ে। এছাড়া ঔপনিবেশিক আমলের ৪৫ ফুট উচু একটি চার্চ টাওয়ারও ভেঙে পড়ে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন   ❑ পড়েছেন  ৯৩২  জন  

সর্বশেষ..