কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

প্রথমার্ধে ইপিএস কমেছে সোনালী আঁশের

নিজস্ব প্রতিবেদক: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত পাটশিল্প খাতের কোম্পানি সোনালী আঁশ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। আর প্রথমার্ধে (জুলাই-ডিসেম্বর, ২০২০) শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) কমেছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, কোম্পানিটির প্রথমার্ধে বা প্রথম দুই প্রান্তিকে (জুলাই-ডিসেম্বর, ২০২০) ইপিএস হয়েছে ২৬ পয়সা। গত বছরের একই সময় যা ছিল এক টাকা ২৩ পয়সা। এ হিসেবে আলোচিত প্রান্তিকে ইপিএস কমেছে ৯৭ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০ সমাপ্ত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ২২৫ টাকা ৭৯ পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর তারিখে ছিল ২২৭ টাকা ১৪ পয়সা। আর এ দুই প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে ১৩ টাকা ৮২ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে যা ছিল পাঁচ টাকা ৬৩ পয়সা (লোকসান)।

পাটশিল্প খাতের ‘এ’ ক্যাটেগরির কোম্পানিটি ১৯৮৫ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। ১০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন দুই কোটি ৭১ লাখ ২০ হাজার টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ ৫৮ কোটি ৪৫ লাখ টাকা। কোম্পানিটির মোট ২৭ লাখ ১২ হাজার শেয়ার রয়েছে। ডিএসই’র সর্বশেষ তথ্যমতে, মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের কাছে রয়েছে ৫০ দশমিক ৭৮ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক পাঁচ দশমিক ৬৩ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে রয়েছে ৪৩ দশমিক ৫৯ শতাংশ শেয়ার।

৩০ জুন, ২০২০ সমাপ্ত হিসাববছরে বিনিয়োগকারীদের জন্য ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা দিয়েছে কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৬২ পয়সা এবং ২০২০ সালের ৩০ জুন তারিখে শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ২২৫ টাকা ৫৩ পয়সা। আর এ হিসাববছরে শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে চার টাকা ৬৯ পয়সা।

এর আগে ৩০ জুন, ২০১৯ সমাপ্ত হিসাববছরে বিনিয়োগকারীদের জন্য ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। ওই সময় কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে এক টাকা এক পয়সা এবং এনএভি দাঁড়িয়েছে ২২৫ টাকা ৯১ পয়সা।

এদিকে গতকাল কোম্পানিটির শেয়ারদর দুই দশমিক ৯৯ শতাংশ বা ১৩ টাকা ৭০ পয়সা কমে প্রতিটি সর্বশেষ ৪৪৩ টাকা ৮০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দরও ছিল ৪৪৩ টাকা ৮০ পয়সা। ওইদিন কোম্পানিটির ২৪ হাজার ৪২২ শেয়ার মোট ৭৬০ বার হাতবদল হয়; যার বাজারদর এক কোটি ৯ লাখ টাকা। ওইদিন শেয়ারদর সর্বনি¤œ ৪৪০ টাকা ১০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ৪৫৭ টাকা ৭০ পয়সায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে কোম্পানির শেয়ারদর ২৮৬ টাকা ৬০ পয়সা থেকে ৭১১ টাকায় ওঠানামা করে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..