প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

প্রথম দিনটি ভারতের

ক্রীড়া ডেস্ক: ভারত সফরের আগেই অস্ট্রেলিয়ার মনে ভয় ধরিয়েছিল রবিচন্দ্রন অশ্বিন-রবীন্দ্র জাদেজাদের স্পিন। কিন্তু সিরিজের প্রথম টেস্টে সফরকারী ব্যাটসম্যানদের বেশি পরীক্ষায় ফেললেন পেসার উমেস যাদব। এর সঙ্গে তো স্বাগতিক স্পিনারদের ছোবল ছিলই। তবে যতটা হওয়ার কথা ততটা হয়নি। তারপরও প্রথম দিনে ২৫৬ রানে অজিদের ৯ উইকেট তুলে নিয়ে পুনে টেস্টের প্রথম দিন নিজেদের করে নিয়েছে বিরাট কোহলির দল।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে শেষ উইকেটে জস হ্যাজেলউডকে নিয়ে লড়ছেন মিচেল স্টার্ক। ২০৫ রানে ৯ উইকেট হারিয়ে বসে অস্ট্রেলিয়া। সে সময় এই জুটি গড়ে ওঠে। প্রথম দিন শেষ হওয়ার আগে স্টার্ক-হ্যাজেলউড ৫১ রানের জুটিতে অবিচ্ছিন্ন। আজ আবার ব্যাটিংয়ে নামবেন তারা।

অথচ টসভাগ্য ছিল অস্ট্রেলিয়ার। তাতে ব্যাটিং-স্বর্গে আগে ব্যাটিংয়ে নামতে ভুল করেননি স্টিভেন স্মিথ। দুই ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ও ম্যান রেনশো শুরুটা করলেন দারুণ। প্রতিপক্ষ বোলারদের কোনো সুযোগ না দিয়েই প্রথম সেশন শেষ হওয়ার আগে স্কোরবোর্ডে যোগ করেন ৮২ রান। কিন্তু এ সময় উমেস যাদবের হাতে বল তুলে দেন কোহলি। তিনিও অধিনায়কের আস্থার প্রতিদান দিলেন। ৩৮ রান করা ওয়ার্নারকে বোল্ড করে ফেরালেন সাজঘরে। এরপরই পেটের পীড়ায় রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে ড্রেসিংরুমে হাঁটলেন অন্য ওপেনার রেনশো। হয়তো এটাই অজিদের জন্য কাল হয়েছিল গতকাল।

লাঞ্চের পর শন মার্শের সঙ্গে স্টিভেন স্মিথের জুটিটা ৩৭ রানের বেশি হয়নি। অজিদের ইনিংসে এবার আঘাত হানেন স্পিনার জয়ন্ত যাদব। মার্শকে কোহলির হাতে ক্যাচ বানিয়ে ফেরান এই ডানহাতি। এরপর চা-বিরতির আগ দিয়ে হ্যান্ডসকম্ব ও স্মিথকে হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে পড়ে সফরকারীরা। এ সময় আবারও ব্যাটিংয়ে নামেন রেনশো। মূলত তার ব্যাটে কিছুটা পথ দেখে অজিরা।

চা-বিরতির পর আবারও পথ হারায় অজিরা। অশ্বিনের বলে মুরালি বিজয়ের হাতে ধরা পড়েন রেনশোও (৬৮)। এক সময় সফরকারীদের রান ছিল ৯ উইকেটে ২০৫। ঠিক সেখান থেকে মিচেল স্টার্কের ব্যাটে কিছুটা আলো দেখে স্টিভেন স্মিথরা। হ্যাজেলউডকে নিয়ে প্রতিপক্ষ বোলারদের বিপক্ষে আক্রমণাত্মক মেজাজে খেলেন এই ডানহাতি।

ভারতের হয়ে উমেশ যাদব নিয়েছেন ৪টি উইকেট। এছাড়া অশ্বিন ও যাদেজার দখলে গেছে দুটি করে উইকেট।