বিশ্ব বাণিজ্য

প্রথম দিনের আলোচনা শেষে বাণিজ্য নিয়ে আশাবাদী যুক্তরাষ্ট্র ও চীন

শেয়ার বিজ ডেস্ক: দীর্ঘদিন ধরে চলমান বাণিজ্যযুদ্ধ নিরসনে আলোচনা শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও চীন। গত বৃহস্পতিবার ওয়াশিংটনে দুই দেশের প্রতিনিধিদের প্রথম দিনের আলোচনা শেষে ইতিবাচক অগ্রগতির আভাস দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। অন্যদিকে চীনের পক্ষ থেকেও আলোচনা ফলপ্রসূ হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়েছে। খবর: রয়টার্স।
আলোচনা শেষে সাংবাদিকদের ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, চীনের সঙ্গে আমাদের খুব ভালো দরকষাকষি হয়েছে। গতকাল শুক্রবার হোয়াইট হাউসে চীনের উপপ্রধানমন্ত্রী লিউ হি’র সঙ্গে সাক্ষাতের কথা রয়েছে তার।
দুই দেশের মধ্যে চলমান বাণিজ্যযুদ্ধের মধ্যে মানবাধিকার নিয়ে উদ্বেগ জানিয়ে সম্প্রতি চীনের ২৮ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এ নিয়ে দুই দেশের মধ্যে নতুন করে উত্তেজনা বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে বৃহস্পতিবার আলোচনা শুরু হয়।
যুক্তরাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী স্টিভেন মুচিন ও বাণিজ্য প্রতিনিধি রবার্ট লাইথিজার চীনের উপপ্রধানমন্ত্রী লিউ হি ও অন্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। প্রথম দিনের আলোচনার বিষয়ে লিউ হি রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়াকে বলেন, বাণিজ্যিক ভারসাম্য, বাজারে প্রবেশযোগ্যতা ও বিনিয়োগকারীদের সুরক্ষার ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সহযোগিতা করার প্রত্যাশা নিয়ে চীনা পক্ষ আলোচনায় অংশ নিচ্ছে।
বৈঠকের বিষয়ে কর্মকর্তারা ইতিবাচক কথা বললেও অনেকেই তাতে আশাবাদী হতে পারছেন না। চীন সরকারের সাবেক অর্থনৈতিক উপদেষ্টা আইনার তানজেন বলেন, ‘আমার মনে হয় বাণিজ্যযুদ্ধে সাময়িক বিরতি চাইছে চীন।’ তিনি বলেন, এ মুহূর্তে সেখানে বড় ধরনের কোনো অগ্রগতি হবে কি না, তা স্পষ্ট নয়। বেইজিংয়ের পরিকল্পনা হলো ওয়াশিংটনে তৈরি করা কোনো চীনা নীতি তারা মেনে নেবে না।
যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে বাণিজ্যযুদ্ধ চলছে প্রায় ১৫ মাস। এর মধ্যে একাধিকবার আলোচনায় বসলেও কোনো সমাধানে পৌঁছাতে পারেনি দেশ দুটি। গত জুলাইয়ে সর্বশেষ আলোচনা হলেও সেখানে কার্যকর কোনো সমাধান আসেনি।
বাণিজ্য উত্তেজনার মধ্যেই চীনের অন্তত ২৫ হাজার কোটি ডলার মূল্যের রফতানি পণ্যের শুল্ক ২৫ শতাংশ শুল্কারোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। চলতি সপ্তাহেই অতিরিক্ত এ শুল্ক কার্যকর হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের এমন কঠোর অবস্থানের কারণে দু’দেশের মধ্যে নতুন করে শুরু হওয়া বাণিজ্য আলোচনা ফলপ্রসূ নাও হতে পারে বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন।

সর্বশেষ..