Print Date & Time : 26 September 2020 Saturday 5:17 pm

প্রথম প্রান্তিকে কমেছে অ্যাকটিভ ফাইন ও এএফসি এগ্রোর ইপিএস

প্রকাশ: December 16, 2019 সময়- 12:34 am

নিজস্ব প্রতিবেদক: চলতি হিসাববছরের প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর, ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ওষুধ ও রসায়ন খাতের কোম্পানি অ্যাকটিভ ফাইন কেমিক্যালস লিমিটেড ও এএফসি এগ্রো বায়োটেক লিমিটেড। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

অ্যাকটিভ ফাইন কেমিক্যালস লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৫ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ৭৫ পয়সা। অর্থাৎ ইপিএস ৩০ পয়সা কমেছে। ২০১৯ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ২২ টাকা ৭৪ পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩০ জুন ছিল ২২ টাকা ২৮ পয়সা। আর এ প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে দুই টাকা ৩০ পয়সা। আগের বছর একই সময় ছিল এক টাকা ৪৯ পয়সা।

এএফসি এগ্রো বায়োটেক লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫৫ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ৮৪ পয়সা। অর্থাৎ ইপিএস ২৯ পয়সা কমেছে। ২০১৯ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৯ টাকা ৮৪ পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩০ জুন ছিল ১৯ টাকা ২৯ পয়সা। আর এ প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে এক টাকা ৭৬ পয়সা। আগের বছর একই সময় ছিল দুই টাকা সাত পয়সা।

এদিকে সম্প্রতি ওষুধ ও রসায়ন খাতের কোম্পানি এএফসি এগ্রো বায়োটেক লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ ১০০ কোটি টাকার নন-কনভার্টেবল জিরো কুপন বন্ড ইস্যু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রাপ্ত তথ্যমতে, ব্যাংক ঋণ পরিশোধ এবং চলতি মূলধন যোগানের জন্য এএফসি এগ্রো বায়োটেক লিমিটেড নন-কনভার্টেবল জিরো কুপন বন্ড ইস্যু করে ১০০ কোটি টাকা উত্তোলনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বন্ডের মেয়াদ হবে পাঁচ বছর। এবং বন্ডটির স্থির সুদ হার হবে ১১ শতাংশ। নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) অনুমোদন সাপেক্ষে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে।