প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ‘আইসিসির সেরা’ মোস্তাফিজ

ক্রীড়া প্রতিবেদক: তার অভিষেক ঠিক ধূমকেতুর মতো। অনেকটা সেই স্প্যানিশ প্রবাদের মতো। যার বাংলা অর্থ এলেন, দেখলেন এবং জয় করলেন। সত্যিই তাই। মোস্তাফিজুর রহমান শুরুতেই জয় করে নিয়েছেন ক্রিকেটপ্রেমীদের মন। গত আইপিএল মাতানোর সময় ভারতীয় সাবেক তারকা ক্রিকেটার ভিভিএস লক্ষ্মণ বলেছিলেন, ‘মোস্তাফিজ শুধু বাংলাদেশের নন, গোটা ক্রিকেট বিশ্বের সম্পদ।’ এমন অনেক প্রশংসায় ধন্য টাইগার ক্রিকেটারটি গতকাল দারুণ এক সম্মাননা পেলেন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) বর্ষসেরা উদীয়মান ক্রিকেটার নির্বাচিত হয়েছেন এই বাঁহাতি পেসার।

এই প্রথম বাংলাদেশের কোনো ক্রিকেটার বিশ্বক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসির কাছ থেকে স্বীকৃতি পেলেন। ইনজুরি কাটিয়ে ৬ মাস পর মোস্তাফিজ ফেরার দিনই পেলেন এই সুখবর। ইনজুরির কারণে গত ৬ মাস মাঠের বাইরে ছিলেন কাটার মাস্টার। গতকাল ফিরে নিউজিল্যান্ড একাদশের বিপক্ষে বল হাতে তুলে নিয়েছেন ২ উইকেট।

আইসিসি মোস্তাফিজের পারফরম্যান্স বিচার করেই এই স্বীকৃতি দিয়েছে। ২০১৫ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে চলতি বছরের ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত নৈপুণ্যের ভিত্তিতে দ্য ফিজকে সেরা হিসেবে বেছে নেয়। এ সময়টায় তিনি তিনটি ওয়ানডেতে নিয়েছেন ৮ উইকেট। ১০ টি-টোয়েন্টিতে শিকার ১৯ উইকেট।

ক্যারিয়ারে বাংলাদেশের হয়ে ৯টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলে ২৬ উইকেট নেন মোস্তাফিজ। ১৩ টি-টোয়েন্টিতে ২২ উইকেট। দুই টেস্টে ৪ উইকেট। এর আগে ২০১৫ সালে আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে জায়গা পেয়েছিলেন কাটার মাস্টার।

এই স্বীকৃতির পর আইসিসির ওয়েবসাইটে নিজের অনুভূতি প্রকাশ করেছেন মোস্তাফিজ। তিনি বলেন, ‘এমন অর্জন আমাকে আসছে বছরগুলোয় আরও ভালো খেলতে অনুপ্রাণিত করবে। বাংলাদেশের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে আইসিসির কোনো বার্ষিক পুরস্কার জিতে দারুণ খুশি আমি।’

নিউজিল্যান্ডে সফররত মোস্তাফিজ আরও বলেন, ‘দেখুন প্রতিটি তরুণ ক্রিকেটারেরই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলার স্বপ্ন থাকে। আমার সেই স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। এই স্বপ্ন পূরণের পথে যারা সহায়তা করেছেন, তাদের সবাইকে ধন্যবাদ।’

এদিকে আইসিসির বর্ষসেরা ক্রিকেটার হয়েছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। যে কারণে ডানহাতি এই স্পিনারের হাতে উঠছে স্যার গারফিল্ড সোবার্স ট্রফি। বর্ষসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটারের পুরস্কার পেয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান কুইন্টন ডি কক। সহযোগী দেশগুলোর মধ্যে সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন আফগানিস্তানের মোহাম্মদ শাহজাদ। ‘স্পিরিট অব ক্রিকেট’ পুরস্কার পেয়েছেন পাকিস্তানের অধিনায়ক মিসবাহ-উল-হক। টি-টোয়েন্টিতে সেরা পারফরমার ওয়েস্ট ইন্ডিজের কার্লোস ব্রাফেট।