আজকের পত্রিকা দিনের খবর প্রথম পাতা সর্বশেষ সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে একদিনের বেতন দেবেন ভ্যাট-কাস্টমস কর্মকর্তারা

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে করোনা ভাইরাস দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। সংক্রমণ রোধে সরকার দু’দফায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে। এর সব কিছু বন্ধ থাকায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন শ্রমজীবী মানুষ। সরকার শ্রমজীবীদের সহায়তা করে যাচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্থ মানুষকে সহায়তার হাত আরো প্রসারিত করতে সরকারি-বেসরকারি খাত থেকে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে সহায়তা করে যাচ্ছেন। এ দুযোর্গ মোকাবেলায় ইতোমধ্যে সরকারি বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের একদিনের বেতন ত্রাণ তহবিলে দেওয়া হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্থ এসব মানুষের সহায়তায় এবার এগিয়ে আসলেন কাস্টমস ও ভ্যাট বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। তাদের একদিনের বেতন প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বিসিএস (কাস্টমস ও ভ্যাট) অ্যাসোসিয়েশন এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে মহাসচিব সৈয়দ মুসফিকুর রহমান শেয়ার বিজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। একদিনের অ্যাসোসিয়েশনের একাউন্টে জমা দিতে স্ব স্ব দপ্তর প্রধানকে অনুরোধ জানিয়ে অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে বার্তা পাঠানো হয়েছে।

বার্তায় বলা হয়, ‘সরকার করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ রোধ করার লক্ষ্যে গত ২৬ মার্চ থেকে আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত সারাদেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে। এতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন দিন মজুর, রিকশা চালক, শ্রমজীবি অর্থাৎ নিম্ন আয়ের মানুষরা। আমাদের দায়িত্ব সামর্থ অনুযায়ী এ হতদরিদ্র ও ছিন্নমূল মানুষগুলোর পাশে দাঁড়ানো। প্রধানমন্ত্রী শিল্পখাতের জন্য গতকাল পর্যন্ত প্রায় ৭৩ হাজার কোটি টাকার বিশেষ প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন। এর পাশাপাশি সরকারের বিভিন্ন বিভাগে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারী ব্যক্তিগত অনুদানের মাধ্যমে এ কাজে এগিয়ে আসছেন।’

আরো বলা হয়, ‘আমাদের কাস্টমস ও ভ্যাট বিভাগও এসব নিম্ন আয়ের খেটে খাওয়া মানুষদের সাহায্য করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ লক্ষ্যে আমরা আমাদের সকলস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের একদিনের বেতন অনুদান হিসাবে প্রদান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সংশ্লিষ্ট কমিশনার, মহাপরিচালক ও প্রকল্প পরিচালকরা তাদের স্ব স্ব ভ্যাট কমিশনারেট, কাস্টম হাউস, অধিদপ্তর, পরিদপ্তর ও দপ্তরের কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারিদের অনুদান সংগ্রহ করে আগামী ১৫ এপ্রিলের মধ্যে অ্যাসোসিয়েশনের ব্যাংক একাউন্টে প্রেরণের ব্যবস্থা করবেন।’

বলা হয়, ‘জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) ও আপীলাত ট্রাইব্যুনালে কর্মরত কাস্টমস ও ভ্যাট বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের অনুদানের অর্থ সংগ্রহের জন্য নুরুল হুদা আজাদ, প্রথম সচিব (শুল্ক নীতি) প্রয়োজনীয় সমন্বয় করবেন।’

মহাসচিব বলেন, ‘আমরা আমাদের সংগৃহীত অনুদান সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে চেকের মাধ্যমে প্রদান করবো, যাতে জনসমাগম পরিহার করে সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করা যায়। এবং ত্রাণ বিতরণে যথাযথ সমন্বয় রক্ষা করা সম্ভব হয়। এ মহতী উদ্যোগে অংশগ্রহণের জন্য ধন্যবাদ জানান তিনি। একই সাথে এ দুযোর্গে সকলকে যার যার অবস্থান থেকে সাধ্যানুযায়ী সহযোগিতা করার আহ্বান জানান।’

###

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..