কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

প্রভাতী ইন্স্যুরেন্সের ঋণমান ‘এএ প্লাস’ ও ‘এসটি-২’

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিমা খাতের কোম্পানি প্রভাতী ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ঋণমান অবস্থান (ক্রেডিট রেটিং) নির্ণয় করেছে আরগুস ক্রেডিট রেটিং সার্ভিসেস লিমিটেড (এসিআরএসএল)। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

তথ্যমতে, কোম্পানিটি দীর্ঘ মেয়াদে রেটিং পেয়েছে ‘এএ প্লাস’ এবং স্বল্প মেয়াদে পেয়েছে ‘এসটি-২’। ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন, ২০২০ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন এবং অন্যান্য প্রাসঙ্গিক তথ্যের আলোকে এ রেটিং দিয়েছে আরগুস ক্রেডিট রেটিং সার্ভিসেস লিমিটেড (এসিআরএসএল)।

এদিকে চলতি হিসাববছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে (এপ্রিল-জুন, ২০২০) শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪২ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ৩৩ পয়সা। এছাড়া ২০২০ সালের ৩০ জুন তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ২০ টাকা চার পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩০ জুনে ছিল ১৮ টাকা ৫০ পয়সা। প্রথম দুই প্রান্তিক বা ছয় মাসে (জানুয়ারি-জুন, ২০২০) শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে এক টাকা ৮৭ পয়সা, আগের বছর একই সময় ছিল এক টাকা ২৪ পয়সা (লোকসান)।

৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য বিমা খাতের কোম্পানিটি ১২ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। আলোচিত সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে দুই টাকা ৩৮ পয়সা এবং ৩১ ডিসেম্বর তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ৯৪ পয়সা। আগের বছর একই সময় যা ছিল যথাক্রমে এক টাকা ৭৭ পয়সা ও ১৭ টাকা ৫৯ পয়সা। আর এই হিসাববছরে শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে পাঁচ টাকা ৪৮ পয়সা, আগের বছর যা ছিল দুই টাকা ৫৩ পয়সা।

চলতি হিসাববছরের প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ, ২০২০) শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ৬৮ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ৬১ পয়সা। এছাড়া ২০২০ সালের ৩১ মার্চ তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ১৯ টাকা ৬০ পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩১ মার্চে ছিল ১৮ টাকা ১৭ পয়সা।

সর্বশেষ বার্ষিক প্রতিবেদন ও বাজারদরের ভিত্তিতে শেয়ারের মূল্য-আয় অনুপাত ২১ দশমিক ৮৫। আর অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনের ভিত্তিতে ২৩ দশমিক ৮৫।  ‘এ’ ক্যাটেগরির এ কোম্পানিটি ২০০৯ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। ১২৫ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ২৯ কোটি ৭০ লাখ ৩০ হাজার টাকা। কোম্পানির রিজার্ভে রয়েছে ২৬ কোটি ৫৫ লাখ টাকা। কোম্পানিটির মোট দুই কোটি ৯৭ লাখ দুই হাজার ৫০৫টি শেয়ার রয়েছে। ডিএসই থেকে প্রাপ্ত সর্বশেষ তথ্যমতে মোট শেয়ারের ৩০ দশমিক ১৭ শতাংশ উদ্যোক্তা বা পরিচালক, প্রতিষ্ঠানিক ১৭ দশমিক ১৭ শতাংশ এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে ৫২ দশমিক ৬৬ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

এদিকে সর্বশেষ কার্যদিবসে কোম্পানিটির শেয়ারদর ছয় দশমিক ৮৫ শতাংশ বা তিন টাকা ৪০ পয়সা বেড়ে  প্রতিটি সর্বশেষ ৫৩ টাকায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ৫২ টাকা। দিনজুড়ে কোম্পানিটির ২৯ লাখ ৭৫ হাজার ৪২১টি শেয়ার মোট এক হাজার ৯৭১ বার হাতবদল হয়। যার বাজারদর ১৪ কোটি ৯৩ লাখ ৮০ হাজার টাকা। দিনভর শেয়ারদর সর্বনি¤œ ৪৮ টাকা ১০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ৫৩ টাকা ৬০ পয়সায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে কোম্পানির শেয়ারদর ১৬ টাকা ৩০ পয়সা থেকে ৫৩ টাকা ৬০ পয়সায় ওঠানামা করে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..