বিশ্ব সংবাদ

প্রাণীর প্রাচীনতম গুহা চিত্রকর্ম আবিষ্কার

শেয়ার বিজ ডেস্ক: ইন্দোনেশিয়ায় বিশ্বের প্রাচীনতম প্রাণীর গুহা চিত্রকর্ম আবিষ্কার করেছেন প্রতœতাত্তি¡করা। চিত্রকর্মটি একটি বন্য শূকরের, যা ৪৫ হাজার ৫০০ বছর আগে আঁকা হয়েছে বলে মনে করেন গবেষকরা। দেশটির সুলাওয়েসি দ্বীপের প্রত্যন্ত উপত্যকার লেয়াং টেডংজ গুহায় চিত্রটি পাওয়া গেছে। এটি এ অঞ্চলে মানুষের বসতি স্থাপনের প্রাচীনতম প্রমাণ বহন করে। খবর: এএফপি, আলজাজিরা।

গিরিমাটির প্রাকৃতিক গাঢ় লাল রঙ ব্যবহার করে চিত্রটি আঁকা হয়েছে। সুলাওয়েসি ওয়ার্টি শূকরের জীবন্ত আকৃতির চিত্রটি দেখে একে কোনো দৃশ্যের বর্ণনার অংশ বলে মনে হয়।

সায়েন্স অ্যাডভান্স জার্নালে প্রকাশিত প্রতিবেদনের সহ-লেখক ম্যাক্সিম অবার্ট বলেন, যারা এটি তৈরি করেছিল তারা পুরোপুরি আধুনিক ছিল, তারা ঠিক আমাদের মতো ছিল, তাদের পছন্দমতো কোনো চিত্রকর্ম করার দক্ষতা এবং সরঞ্জামাদি তাদের তাদের কাছে ছিল।

অবার্ট দিন নির্ণয়ের একজন বিশেষজ্ঞ। তিনি চিত্রকর্মের শীর্ষে ক্যালসাইট পাথরের তৈরি একটি চিহ্ন লক্ষ্য করেন। এবং ইউরেনিয়াম-সিরিজের আইসোটোপ ব্যবহার করে নির্ধারণ করেন, এটি ৪৫ হাজার ৫০০ বছর পুরোনো। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৩৬ সেন্টিমিটার দীর্ঘ ও ৫৪ সেন্টিমিটার চওড়া (৫৩ ইঞ্চি বাই ২১ ইঞ্চি) পরিমাপের এই পেইন্টিংটিতে একটি শূকরের, যা শিংয়ের মতো মুখের ছাঁচযুক্ত প্রজাতিটির প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষদের বৈশিষ্ট্যযুক্ত।

শূকরটির পেছনে ওপরের দিকে দুটি হাতের ছাপ রয়েছে, যা আরও দুটি শূকরের মুখোমুখি হওয়ার জন্য প্রস্তুত বলে মনে হয়। অন্য শূকর দুটি শুধু আংশিকভাবে সংরক্ষিত আছে।

সহ-লেখক অ্যাডাম ব্রæম বলেছেন, শূকরটি অন্য দুটি শূকরের মধ্যে একটি লড়াই বা সামাজিক মিথস্ক্রিয়া পর্যবেক্ষণ করছে বলে মনে হয়।

হাতের ছাপগুলো তৈরি করার জন্য শিল্পীরা তাদের হাত একটি পৃষ্ঠে রেখে তার ওপরে রঙ ছড়িয়ে দিয়েছেন বলে জানান গবেষকরা। দলটি অবশিষ্টাংশ থেকে ডিএনএ নমুনা বের করার চেষ্টা করবেন বলে আশাবাদী।

দক্ষিণ আফ্রিকাতে ৭৩ হাজার বছর আগে তৈরি করা হ্যাশট্যাগের মতো চিত্রিত একটি ডুডলকে বিশ্বের প্রাচীনতম অঙ্কন বলে বিশ্বাস করা হয়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..