Print Date & Time : 9 March 2021 Tuesday 6:31 am

প্রেম-প্রকৃতি ও সৃষ্টির ব্যাকরণ গন্তব্যে বিপন্ন বিদ্রুপ

প্রকাশ: February 26, 2020 সময়- 01:33 am

মনসুর হেলাল মূলত কবি। ছন্দ ও সামর্থ্যরে এক যৌগিক প্রক্রিয়া তার কবিতা। শব্দের মেলবন্ধন কিংবা অনুপ্রাস সৃষ্টিতে তিনি পারঙ্গম। তার কবিতার বিষয় অন্তঃস্থিত। কিন্তু তা সীমাবদ্ধ নয়। কবিতাকে বরাবরই শিল্প জ্ঞান করেন তিনি, তবে মানব ও মানবিকতাই তার কবিতার প্রধান উপজীব্য।

ক্রমশ মনসুর হেলাল এ প্রজন্মের শক্তিমান কবিকণ্ঠ হয়ে উঠছেন। তার প্রথম কাব্যগ্রন্থ থেকে চার বছর পর ‘গন্তব্যে বিপন্ন বিদ্রুপ’-এ নবতর কাব্যগ্রন্থে তিনি ক্রম-উত্তরণের চিহ্ন রেখেছেন। গীতিময় তার কবিতায় রয়েছে এক নির্বিবাদী ছায়াচ্ছন্ন বেদনাবোধ; কিন্তু কোথাও স্পন্দিত হয় নিঃশব্দ ক্রোধ। ছন্দ তার কবিতার অলংকার; কিন্তু ছন্দকে তিনি বেঁধে রাখতে চাননি লোহার নিগড়ে। তিনি দেখেন, ‘নিঃশ্বাসের ভাঁজে ভাঁজে বৈরিতার নুন’ অথচ ‘অমীমাংসিত সত্যের প্রাচীর পেরিয়ে’ তখনও ‘হাতে নিয়ে রক্তজবা’ দাঁড়িয়ে রয়েছে একজন। এবার তার প্রশ্ন ‘কেন এলে?’

মনসুরের কবিতৃষ্ণা মাঝেমধ্যে এক জান্তব আকাক্সক্ষাকেও ছুঁয়ে যায়। একটু উদ্ধৃতি দিই, ‘বাতাবী লেবুর মতো কারো কারো উষ্ণ ঠোঁট/নীল শিপনের ভাঁজে শৃঙ্খলিত বুকের জমিন। সামিনার নাকের ডগায় স্থির ক্রোধের শিশির/আশশ্যাওড়ার ঝোঁপে তন্দ্রাহত/বেলির মন্থন’।

মনসুর হেলালের কাব্যভুবনে এভাবেই মিলেমিশে থাকে প্রেম-প্রকৃতি, বিষন্নতা আর সৃষ্টির ব্যাকরণ।

গন্তব্যে বিপন্ন বিদ্রুপ প্রকাশ করেছে জয়তী। প্রচ্ছদ এঁকেছেন হায়দার আহমেদ, দাম ১৫০ টাকা। একুশে গ্রন্থমেলার ৪৫৮, ৪৫৯ ও ৪৬০ নং স্টলে পাওয়া যাচ্ছে।

  জহির ইলিয়াছ খান