সুশিক্ষা

ফেনীতে কবি নবীনচন্দ্র সেনের জন্ম স্মরণসভা

ফেনীতে কবি নবীনচন্দ্র সেনের ১৭৩তম জন্ম স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১০ ফেব্রুয়ারি শহরের নবীনচন্দ্র সেন পাবলিক লাইব্রেরির আয়োজনে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ফেনী জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজ্জামান। তিনি বলেন, কবি নবীনচন্দ্র সেনের চর্চাকে ছড়িয়ে দিতে হবে। আধুনিক ফেনীর রূপকার এ বিস্ময়কর প্রতিভা সম্পর্কে তরুণ প্রজন্মকে জানাতে হবে।

অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক আরও বলেন, সাহিত্যের পাশাপাশি প্রশাসনিক কর্মকাণ্ডেও নবীনচন্দ্র সেন ঈর্ষণীয় সাফল্য অর্জন করেন, যা আমাদের জন্য অনুসরণীয়।

ফেনীর কীর্তিমান সন্তানদের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, এখানে জহির রায়হান, শহীদ শহীদুল্লাহ কায়সার ও সেলিম আল দীন জন্ম নিয়েছেন। তাদের শুধু বিশেষ দিনে নয়, সব সময় স্মরণ করতে হবে। তরুণ প্রজন্মকে তাদের কীর্তি সম্পর্কে জানাতে হবে।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সুমনী আক্তারের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক পিকেএম এনামুল করিম ও সহকারী কমিশনার তাছলিমা শিরিন।

আলোচনায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কবি ও গবেষক শাবিহ মাহমুদ। এছাড়া বক্তব্য রাখেন নবীনচন্দ্র সেন পাবলিক লাইব্রেরির সাধারণ সম্পাদক মো. জসিম উদ্দিন, অ্যাডভোকেট সমীর কর, কবি ও প্রকাশক ইকবাল আলম। অনুষ্ঠানে ফেনীর কবি, সাহিত্যিক ও সুধীজনরা উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা সভা শেষে লাইব্রেরি প্রাঙ্গণে নবীনচন্দ্র সেনের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে তার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানান অতিথিরা।

উল্লেখ্য কবি নবীন চন্দ্র সেনের উদ্যোগে ১৮৭৫ সালে নোয়াখালী জেলার একটি মহকুমা হিসেবে ফেনীর যাত্রা হয়। ১৮৮৪ সালে মহকুমা প্রশাসক হিসেবে ফেনীতে আসেন তিনি। তার প্রচেষ্টায় রাজাঝির দিঘি সংস্কার, ফেনী বাজার প্রতিষ্ঠা, এনট্রান্স স্কুল (ফেনী সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়) ও ফেনীর ওপর দিয়ে আসাম-বেঙ্গল রেলপথের নকশা প্রণয়ন করা হয়। তিনি দুই দফায় প্রায় ৮ বছর ফেনীতে ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট ও ডেপুটি কালেক্টর হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এ সময় তিনি অনন্য কর্মদক্ষতায় জঙ্গলাকীর্ণ ফেনীকে মনোরম শহরে পরিণত করেন।

নবীন চন্দ্র সেনের বিখ্যাত মহাকাব্য ‘পলাশীর যুদ্ধ’। এতে নবাব সিরাজউদ্দৌলার পরাজয়ের মধ্য দিয়ে ইংরেজ শাসনের শুরুর বেদনাত্মক আখ্যান ফুটে উঠেছে। এছাড়া তার ১৫ কাব্য ও উপন্যাস রয়েছে। তার রচিত আত্মজীবনী ‘আমার জীবন’ বাংলা সাহিত্যের একটি আলোচিত স্মৃতিগ্রন্থ।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..