প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ফের দেশি চলচ্চিত্রে ঝুঁকছে জাজ

 

শোবিজ ডেস্ক: যৌথ প্রযোজনার চলচ্চিত্র নির্মাণ ‘আপাতত’ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এমন সিদ্ধান্তের ফলে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া আবার দেশি চলচ্চিত্র প্রযোজনার দিকেই ঝুঁকছে। ২০১২ সালে ডিজিটাল চলচ্চিত্র ‘ভালোবাসার রঙ’ ছবির মধ্য দিয়ে যাত্রা শুরু করে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া। এরপর ‘পোড়া মন’, ‘অন্যরকম ভালোবাসা’, ‘ভালোবাসা আজকাল’, ‘অনেক সাধের ময়না’সহ আরও বেশ কিছু দেশি প্রযোজনায় চলচ্চিত্র নির্মাণ করে। ২০১৫ সালের দিকে ‘রোমিও ভার্সেস জুলিয়েট’, ‘অগ্নি-২’, ‘আশিকী’সহ বেশকিছু যৌথ প্রযোজনার সিনেমা নির্মাণ করে। ভালো ব্যবসা করায় প্রতিষ্ঠানটি যৌথ প্রযোজনার দিকেই ঝুঁকতে শুরু করে। দেশি চলচ্চিত্রের পাশাপাশি নিয়মিতভাবেই যৌথ প্রযোজনার চলচ্চিত্রে বিনিয়োগ করেছে প্রতিষ্ঠানটি। বর্তমানে যৌথ প্রযোজনায় সিনেমা নির্মাণে সবচেয়ে এগিয়ে আছে জাজ। চলতি বছর ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত জাজের দুটি সিনেমাই যৌথ প্রযোজনার। ছবি দুটির বিরুদ্ধে নীতিমালা ভঙ্গের অভিযোগ তুলে আন্দোলনে নামে চলচ্চিত্র ঐক্যজোট। আন্দোলনের মুখেই যৌথ প্রযোজনার সিনেমা নির্মাণ ‘আপাতত’ বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। এ মুহূর্তে কী পরিকল্পনা জাজের? কর্ণধার আবদুল আজিজ বললেন, ‘যৌথ প্রযোজনা বন্ধ হলে তো সমস্যা থাকার কথা না। লোকাল সিনেমা করবো।’ প্রতিষ্ঠানটির সিইও আলিমুল্লাহ খোকন নিশ্চিত করেছেন, ‘১ আগস্ট নতুন একটি দেশি চলচ্চিত্র আনছে জাজ। ছবিটির সব শিল্পীই দেশি।’ তবে ছবিটি সম্পর্কে এর চেয়ে বেশি তথ্য দিতে চাননি তিনি। পাশাপাশি আরও বেশকটি দেশি চলচ্চিত্র নির্মাণের পরিকল্পনা আছে জাজের। অন্যদিকে জাজের হাতে এখন বেশকটি চলচ্চিত্র রয়েছে। সেগুলোর ভবিষ্যৎ কী? আজিজ বললেন, ‘পারমিশন যেগুলোর নেওয়া আছে, সেগুলোর শুটিংয়ে বাধা নেই। কাজগুলো শেষ করবো।’ দেশি চলচ্চিত্রে বিনিয়োগ করলেও তার দাবি, লোকাল সিনেমার চেয়ে যৌথ প্রযোজনার সিনেমাই বেশি দেখে দর্শক। যৌথ প্রযোজনা বন্ধ হলে সিনেমা হল বাঁচবে না। অন্যদিকে চলচ্চিত্র ঐক্যজোটের নেতা ফারুক বলছেন, ‘যৌথ প্রযোজনাকে আমরা স্বাগত জানাই। নীতিমালা মানলে আমাদের কোনো আপত্তি নেই।’