বিশ্ব সংবাদ

ফের সৌদিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

শেয়ার বিজ ডেস্ক: সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে কয়েক দফা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। গত শনিবার রাতে রাজধানী রিয়াদ ছাড়াও কয়েকটি স্থানে হামলা প্রতিহতের দাবি করলেও সৌদি জোটের পক্ষ থেকে কোনো হতাহতের কথা জানানো হয়নি। সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার জন্য ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীদের দায়ী করা হয়েছে। খবর: আল-জাজিরা, আরব নিউজ।

সৌদি জোটের মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল তুর্কি আল মালকি এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, রাজধানী রিয়াদকে লক্ষ করে ক্ষেপণাস্ত্র এবং জিজান প্রদেশে তিন দফা ড্রোন হামলা চালিয়েছে হুথি বিদ্রোহীরা। চতুর্থ ড্রোন হামলা চালানো হয়েছে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় খামিস মুসাইত শহরে। তবে হুথিদের ছোড়া এসব ক্ষেপণাস্ত্র ও বোমাভর্তি ড্রোন হামলা প্রতিহত করতে সক্ষম হয়েছে বলে দাবি করেছে সৌদি।

‘আল একবারিয়া’ টেলিভিশনে রিয়াদের আকাশে ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস করার বেশ কিছু ছবি প্রকাশ করা হয়েছে। এসব হামলায় কমপক্ষে একটি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে হুথি বিদ্রোহীদের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। এর আগেও সৌদিতে হামলা চালিয়েছে হুথি বিদোহীরা।

সৌদি জোটের মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল তুর্কি আল মালিকি বলেন, বেসামরিক মানুষকে লক্ষ্যবস্তু বানাতে হুথিরা পদ্ধতিগতভাবে পথ বেছে নিয়েছে।

রিয়াদে বিস্ফোরণের পর সেখানকার যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের পক্ষ থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সব নাগরিককে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। হামলার পর রিয়াদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কয়েকটি ফ্লাইট বিলম্বিত কিংবা অন্য জায়গায় সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

এদিকে চলতি মাসের শুরুতেই যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ঘোষণা দিয়েছেন, ইয়েমেনে সৌদি জোটের লড়াইয়ে তার দেশ সমর্থন দেয়া বন্ধ করে দেবে।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে ইয়েমেনের প্রেসিডেন্ট মনসুর হাদিকে উৎখাত করে রাজধানী সানার দখল নেয় ইরান-সমর্থিত হুথি বিদ্রোহীরা। রিয়াদে নির্বাসিত হাদিকে আবারও ক্ষমতায় বসাতে ইয়েমেনে হামলা শুরু করে সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং কয়েকটি পশ্চিমা দেশের জোট। এ হামলায় রাজধানী সানার নিয়ন্ত্রণ হারালেও দেশের বিস্তৃত এলাকার দখল এখনও ধরে রেখেছে ইরান-সমর্থিত হুথি বিদ্রোহীরা।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..