দিনের খবর প্রচ্ছদ প্রথম পাতা

ফ্লোর প্রাইসের চিন্তা ভুলে যাচ্ছেন বিনিয়োগকারীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রথম প্রথম শেয়ারের ফ্লোর প্রাইস নিয়ে দুশ্চিন্তার সীমা ছিল না বিনিয়োগকারীদের। বিষয়টি নিয়ে তারা এত বেশি দুশ্চিন্তার মধ্যে ছিলেন, সামান্য বেশি দরেও (ফ্লোর প্রাইস) তাদের শেয়ার কিনতে দেখা যায়নি। যে কারণে মূল মার্কেটের লেনদেন ৪০ কোটি টাকার নিচে নেমে আসে। একটা সময় বিনিয়োগকারীরা ফ্লোর প্রাইস তুলে দেওয়ার জন্যও দাবি জানান। কিন্তু এখন সেই চিত্র বদলে গেছে। ফ্লোর প্রাইসের চিন্তা বাদ দিয়ে এখন বিনিয়োগে মনোযোগী হয়েছেন তারা। ফলে পুঁজিবাজারে লেনদেন বৃদ্ধির পাশাপাশি সবগুলো সূচকই ঊর্ধ্বমুখী রয়েছে।

সাম্প্রতিক বাজার পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, ঈদের আগে থেকেই পুঁজিবাজারের সার্বিক পরিস্থিতি আগের চেয়ে ভালো যাচ্ছে। ঈদের পর পরিস্থিতির আরও উন্নতি হয়েছে। ঈদের পর দুই কার্যদিবসই ঊর্ধ্বমুখী দেখা গেছে পুঁজিবাজার। প্রথম কার্যদিবসে ডিএসইতে সূচক বৃদ্ধির পাশাপাশি লেনদেন হয়েছিল ৬৭২ কোটি টাকা। গতকাল তা আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিন ডিএসইতে মোট ৬৭৬ কোটি টাকার শেয়ার এবং মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট দর কেনাবেচা হয়।

এদিকে গতকাল লেনদেন বৃদ্ধির পাশাপাশি ডিএসইর প্রধান সূচক বৃদ্ধি পায় ২৭ পয়েন্ট। দিন শেষে সূচকের অবস্থান হয় ৪ হাজার ২৯৯ পয়েন্টে। পাশাপাশি গতকাল লেনদেন হওয়া বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারই ফ্লোর প্রাইসের বেশি দরে কিনতে দেখা গেছে বিনিয়োগকারীদের। গতকাল ডিএসইতে মোট ৩৫৪টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হতে দেখা যায়। এর মধ্যে দর বাড়তে দেখা যায় ১৪৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের।

অন্যদিকে খাতভিত্তিক লেনদেনে চোখ রাখলে দেখা যায়, ঈদের আগের মতোই আধিপত্য বিস্তার করছে বিমা এবং ওষুধ ও রসায়ন খাত। গতকালের খাতভিত্তিক লেনদেন পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, মোট লেনদেনের ২৪ শতাংশ ছিল বিমা খাতের। সকাল থেকেই এই খাতের শেয়ার বেশি দরে কেনার প্রবণতা দেখা যায় বিনিয়োগকারীদের মধ্যে। যার জেরে দিন শেষে এই খাতের বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারদর বাড়তে দেখা যায়। এর পরের অবস্থানে ছিল ওষুধ ও রসায়ন খাত। মোট লেনদেনে এই খাতের অংশগ্রহণ ছিল ২২ শতাংশের কাছাকাছি। বিমা খাতের মতো এই খাতের শেয়ারেও নজর ছিল ক্রেতাদের। এছাড়া গতকাল প্রকৌশল এবং বস্ত্র খাতের লেনদেনে অংশগ্রহণ ছিল প্রায় ১০ শতাংশ করে।

এদিকে ঈদের পর ব্লক মার্কেটের দাপট আগের চেয়ে আরও কমে গেছে। প্রথম কার্যদিবস ডিএসইর ব্লক মার্কেটে লেনদেন ছিল ২০ কোটি টাকা। আর গতকাল এই মার্কেটে ৩২ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হতে দেখা যায়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন
ট্যাগ ➧

সর্বশেষ..