প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

বই বিতরণ উৎসবে শিশুদের শপথ: ‘পড়তে পড়তে বই অনেক বড় হই’

 

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার: জাতীয় বই বিতরণ উৎসবে বড় হওয়ার জন্য বই পড়ার প্রতিজ্ঞা করেছে কোমলমতি শিশুরা। উপস্থিত শিশুরা সম্মিলিত কণ্ঠে চিৎকার করে ‘পড়তে পড়তে বই, অনেক বড় হই’ বলে বই পড়ে বড় হওয়ার শপথ করেছে।

গতকাল রোববার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে বই বিতরণ উৎসব উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এই উৎসবের আয়োজন করা হয়।

বছর শুরুর দিন সকালে কোমলমতি শিশুরা নতুন বই হাতে পেয়ে উৎসবে মেতে ওঠে। এ উপলক্ষে ঢাবি খেলার মাঠে তৈরি করা হয়েছে লাল-সবুজের মঞ্চ। মাঠের আকাশে উড়ছে নানা রঙের বেলুন, শিশুদের হাতে হাতে লাল রেশমি ফিতার ওড়াউড়ি। সব মিলিয়ে খেলার মাঠ পেয়েছে অসাধারণ এক উৎসবের আবহ।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্যমতে, ২০১৭ শিক্ষাবর্ষে প্রাথমিক ও প্রাক-প্রাথমিক স্তরে দুই কোটি ৪৯ লাখ ৮৩ হাজার ৯৯৩ শিক্ষার্থীর মধ্যে মোট ১১ কোটি ৫৫ লাখ ২৬ হাজার ৯৫২ পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হবে।

এছাড়া দেশের মাধ্যমিক স্তরের প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এ উৎসব পালিত হবে। বিভাগ, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে জনপ্রতিনিধি এবং স্থানীয় প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উৎসবে উপস্থিত থাকবেন।

এদিকে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর শিশুদের জন্য নিজস্ব বর্ণমালা সংবলিত মাতৃভাষায় পাঠ্যবই প্রণয়ন এবং সরবরাহের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ২০১৭ সালেই প্রথম প্রাক-প্রাথমিক পর্যায়ে সারা দেশে ৫টি ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর (চাকমা, মারমা, ত্রিপুরা, গারো, সাদরী) শিক্ষার্থীর মাঝে আট ধরনের পঠন-পাঠন সামগ্রী বিতরণ করা হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ শিক্ষাবর্ষে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিনামূল্যে ৩৬ কোটি ২১ লাখ ৮২ হাজার ২৪৫টি পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হবে। এর মধ্যে চার কোটি ২৬ লাখ ৩৫ হাজার ৯২৯ জন ইবতেদায়ী, দাখিল, দাখিল কারিগরি, এসএসসি ভোকেশনাল, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী ও দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীর মধ্যে বিনামূল্যে এসব বই বিতরণ করা হবে।