প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

বঙ্গোপসাগরে জাহাজডুবি উদ্ধার অভিযান শুরু হয়নি

 

খুলনা প্রতিনিধি: বঙ্গোপসাগরের ডুবে যাওয়া কয়লাবোঝাই কার্গো উদ্ধার অভিযান শুরু হয়নি। তবে গতকাল শনিবার সকালে দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ, কোস্টগার্ড ও মালিকপক্ষের প্রতিনিধিরা।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কমোডর ফারুক হাসান মোবাইল ফোনে সাংবাদিকদের জানান, ‘ডুবে যাওয়া কয়লাবোঝাই কার্গোটি উদ্ধারে যৌথ অভিযান শুরু হবে। বঙ্গোপসাগরে উত্তাল সে াতের কারণে শিগগির উদ্ধার অভিযান শুরু করা সম্ভব হচ্ছে না।’

এদিকে ওই ঘটনায় মোংলা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন কার্গোটির মাস্টার সোহেল রানা। গত শুক্রবার মোংলা বন্দরের ফেয়ারওয়ের অদূরে হিরণপয়েন্টে ১ হাজার ১০ মেট্রিক টন কয়লা নিয়ে ডুবে যায় ‘এমভি আইচগাতি’ নামের ওই কার্গো জাহাজ। দুর্ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। এদিকে উদ্ধারকাজ শুরুতে দেরি হওয়ায় ডুবন্ত জাহাজটি সে াতে অন্যদিকে সরে যেতে পারেÑএমন আশঙ্কা করছেন জাহাজের নাবিকরা।

এর আগে, ২০১৬ সালের ১৯ মার্চ সুন্দরবনের শ্যালা নদীতে এক হাজার ২৩৫ টন কয়লা নিয়ে ডুবে যায় এমভি সী হর্স নামের একটি লাইটার জাহাজ। ২০১৫ সালের ২৭ অক্টোবর ৫১০ টন কয়লা নিয়ে ডুবে যায় লাইটার জাহাজ ‘জিয়া রাজ’। তবে

কয়লা উদ্ধার হলেও দুর্ঘটনাকবলিত জাহাজগুলোকে উদ্ধার করা যায়নি।