কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

বছরের ব্যবধানে ডিএসইর লেনদেন ফের ৯০০ কোটির ঘরে

নিজস্ব প্রতিবেদক: সপ্তাহের প্রথম দিন গতকাল সূচকের ব্যাপক উত্থানে লেনদেন হয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল প্রায় ৮২ শতাংশ কোম্পানির দর বৃদ্ধিতে প্রধান সূচক ডিএসইএক্সের ১৬৯ পয়েন্ট উত্থান হয়। বাকি দুই সূচকও ইতিবাচক ছিল। লেনদেনের শুরু থেকেই প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের শেয়ার কেনার চাপে সূচক ধীরে ধীরে ঊর্ধ্বমুখী হয়। দুপুর ১২টার পরে শেয়ার কেনায় একটু ছন্দপতন হলেও অল্প সময়ের ব্যবধানে তা ঠিক হয়ে যায়। চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক ও শেয়ারদর বাড়লেও লেনদেন কমেছে।  

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১৬৯ দশমিক ৫৪ পয়েন্ট বা তিন দশমিক ৭১ শতাংশ বেড়ে চার হাজার ৭৩৪ দশমিক ১৫ পয়েন্টে অবস্থান করে।

ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক ২৯ দশমিক ৯২ পয়েন্ট বা দুই দশমিক ৮৬ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৭৫ দশমিক ৭৪ পয়েন্টে এবং ডিএস৩০ সূচক ৫৫ দশমিক ৬৯ পয়েন্ট বা তিন দশমিক ৬২ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৫৯২ দশমিক ৩২ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন এক দিনে আট হাজার ৪৬৫ কোটি টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ৫৫ হাজার ৫৩১ কোটি ৪৯ লাখ ১৪ হাজার টাকায়। ডিএসইতে লেনদেন হয় ৯১৬ কোটি ২৫ লাখ ৮৬ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৭৩০ কোটি ৫৭ লাখ ৭১ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন বেড়েছে ১৮৫ কোটি ৬৮ লাখ টাকা। এদিন ৩৫ কোটি ৬০ লাখ ৩২ হাজার ৪৩১টি শেয়ার দুই লাখ ১২ হাজার ৯০৯ বার হাতবদল হয়। লেনদেন হওয়া ৩৫৬ কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ২৯৩টির, কমেছে ৪০টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২৩টির দর।

গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে সিমেন্ট খাতের লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ। কোম্পানিটির ৩২ কোটি ১৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর অপরিবর্তিত ছিল। এরপর খুলনা পাওয়ারের ২৩ কোটি ৫৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ৬০ পয়সা। বাংলাদেশ সাবমেরিন কেব্ল কোম্পানির ১৭ কোটি ৯৭ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে পাঁচ টাকা ৭০ পয়সা। বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের ১৬ কোটি ২৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর বেড়েছে এক টাকা ৮০ পয়সা। শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজের ১৬ কোটি ১০ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর কমেছে ৬০ পয়সা। এছাড়া ইন্দোবাংলা ফার্মার ১৫ কোটি ৩৫ লাখ টাকা, সামিট পাওয়ারের ১৫ কোটি টাকা, এসএস স্টিলের ১৫ কোটি টাকা, সিঙ্গার বিডির ১৪ কোটি ৭৯ লাখ টাকা ও প্যারামাউন্ট টেক্সের ১৪ কোটি ৭১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।  

১০ শতাংশ বেড়ে ওরিয়ন ইনফিউশন দরবৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে। এসিআই ফরমুলেশনের দর ৯ দশমিক ৯৭ শতাংশ, সায়হাম টেক্সের দর ৯ দশমিক ৯৪ শতাংশ, ওরিয়ন ফার্মার দর ৯ দশমিক ৮৬ শতাংশ, বেক্সিমকোর দর ৯ দশমিক ৮০ শতাংশ, আফতাব অটোর দর ৯ দশমিক ৭০ শতাংশ, ব্র্যাক ব্যাংকের দর ৯ দশমিক ৬৭ শতাংশ, এসিআই লিমিটেডের দর ৯ দশমিক ৬৬ শতাংশ, এস আলম কোল্ড রোল্ডের দর ৯ দশমিক ৫৮ শতাংশ ও প্রিমিয়ার সিমেন্টের দর ৯ দশমিক ৫৪ শতাংশ বেড়েছে।        

সাত দশমিক ৮৬ শতাংশ কমে দরপতনের শীর্ষে উঠে আসে অলটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ। মেঘনা পেটের দর ছয় দশমিক ৮৬ শতাংশ কমেছে। প্রগ্রেসিভ লাইফের দর পাঁচ শতাংশ, সমতা লেদারের দর চার দশমিক ৬০ শতাংশ, সাভার রিফ্রাক্টরিজের দর চার দশমিক ৫৮ শতাংশ, তুংহাই নিটিংয়ের দর চার দশমিক ৩৪ শতাংশ, ইমাম বাটনের দর চার দশমিক ২৯ শতাংশ, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিকের দর চার দশমিক ২১ শতাংশ, দুলামিয়া কটনের দর তিন দশমিক ৪৫ শতাংশ ও ভ্যানগার্ড এএমএল বিডি মিউচুয়াল ফান্ড ওয়ানের দর তিন দশমিক ৪৪ শতাংশ কমেছে।                

অন্যদিকে সিএসইতে গতকাল সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ৩২৫ দশমিক ৬৬ পয়েন্ট বা তিন দশমিক ৮৬ শতাংশ বেড়ে আট হাজার ৭৫৮ দশমিক ১৩ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৫৩৩ দশমিক ৬৭ পয়েন্ট বা তিন দশমিক ৮৩ শতাংশ বেড়ে ১৪ হাজার ৪৩৬ দশমিক ৯৩ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল সর্বমোট ২৬৮ কোম্পানি এবং মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ২১৪টির, কমেছে ৩৭টির ও অপরিবর্তিত ছিল ১৭টির দর।

সিএসইতে এদিন ৩০ কোটি আট লাখ ১২ হাজার ৩৫২ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৭৩ কোটি ৩৯ লাখ ৫৬ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন কমেছে ৪৩ কোটি ৩১ লাখ টাকা। 

সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে অবস্থান করে এসএস স্টিল। কোম্পানিটির এক কোটি ৫৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এর পরের অবস্থানগুলোতে থাকা বেক্সিমকোর এক কোটি ৪৪ লাখ, লাফার্জহোলসিমের এক কোটি ১৭ লাখ, বিএসসিসিএলের ৯০ লাখ, ডরিন পাওয়ারের ৮৫ লাখ, শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজের ৮৪ লাখ, প্রিমিয়াম ব্যাংকের ৬৬ লাখ, এডিএন টেলিকমের ৬২ লাখ ও সায়হাম কটনের ৫৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।    

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..