বড় পতনের দিনও বিমা খাতের শেয়ারের বড় উল্লম্ফন

মুস্তাফিজুর রহমান নাহিদ: দীর্ঘদিন পর গতকাল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের বড় পতন দেখা গেছে। এর মধ্যে পরপর তিন দিন সূচকের বড় পতন দেখা যায়। দিন শেষে ৬৫ পয়েন্ট বা এক শতাংশ হ্রাস পেয়ে সূচকের অবস্থান হয় সাত হাজার ২৪৮ পয়েন্ট। একইভাবে হ্রাস পেতে দেখা যায় লেনদেন হওয়া সিংহভাগ কোম্পানির শেয়ারদর। দিন শেষে কমতে দেখা যায় লেনদেন হওয়া ৫৬ শতাংশ কোম্পানির শেয়ারদর।

গতকাল ডিএসইতে মোট ৩৭৬টি কোম্পানির শেয়ারদর হ্রাস পেতে দেখা যায়। এর মধ্যে দর বাড়ে ১০৬টির। দর হ্রাস পায় ২৪১টির এবং ২৯টির দর অপরিবর্তিত ছিল।

এদিকে সূচকের বড় পতনের দিনও উজ্জ্বল দেখা গেছে বিমা খাতকে। আগের কার্যদিবসের মতো গতকালও বিনিয়োগকারীদের আগ্রহের শীর্ষে ছিল এ খাতের শেয়ার। সে কারণে লেনদেনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ছিল বিমা খাতের কোম্পানির আধিপত্য। এর জের ধরে দিন শেষে এ খাতের তালিকাভুক্ত ৫১টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে মাত্র একটি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারদর হ্রাস পেতে দেখা যায়। দিন শেষে মেঘনা লাইফে ইন্স্যুরেন্সের শেয়ারদর ২০ পয়সা কমে ৯৩ টাকা ৯০ পয়সায় লেনদেন হয়।

অন্যদিকে গতকাল ডিএসইতে মোট এক হাজার ৯৫২ কোটি টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট কেনাবেচা হতে দেখা যায়। এর মধ্যে ব্লক মার্কেটের লেনদেন ছিল প্রায় ৭১ কোটি টাকা। গতকাল এ মার্কেটে মোট ২৫টি কোম্পানি নেয়। কোম্পানিগুলোর মধ্যে চারটির লেনদেন ৫৮ কোটি টাকার বেশি। জানা গেছে, কোম্পানিগুলোর ৮৩ লাখ ৭৯ হাজার ২৪৬টি শেয়ার ৫০ বার হাত বদলের মাধ্যমে ৭০ কোটি ৯৪ লাখ ৭৫ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে। এসব কোম্পানির শেয়ারের দর বৃদ্ধির মূলে রয়েছে ভালো মুনাফা থাকার নজির। দীর্ঘদিন ধরে এ খাতের শেয়ার থেকে ভালো মুনাফা তুলছেন বিনিয়োগকারীরা, যদিও এ খাতের শেয়ারের ঢালাও দর বৃদ্ধির বিষয়টি নিয়ে সমলোচনাও রয়েছে।

এসব কোম্পানির মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ ২৭ কোটি ২৭ লাখ ৫২ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে ফরচুন সুজের। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৩ কোটি ৪০ লাখ টাকা পাইওনিয়ার ইন্স্যুরেন্সের, তৃতীয় সর্বোচ্চ ৯ কোটি ৭৭ লাখ ২১ হাজার টাকা লেনদেন হয়েছে জেনেক্সের ও চতুর্থ সর্বোচ্চ আট কোটি ১৯ লাখ ৮২ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে সোনালী পেপারের।

সর্বশেষ..