মত-বিশ্লেষণ

বন্ধ হয়ে যাক সকল বৃদ্ধাশ্রম

অনেকেই ‘মা’ দিবসে মা নিয়ে অনেক কিছু লিখেছেন। মা তার জন্যই এই করেছেন, মা তার জন্য ঐ করেছেন, দশজনের একজন হিসেবে গড়ে তুলেছেন। আপনি মায়ের প্রতি কৃতজ্ঞ ইত্যাদি।

এখন প্রশ্ন হচ্ছে, আপনি আপনার মায়ের জন্য কি করেছেন? খোঁজ নিলে দেখা যাবে, সুযোগ থাকা সত্ত্বেও আপনার সাথেই মাকে রাখছেন না। তিনি হয়তো অন্য কোথাও থাকছেন। হয়তো ছয় মাসের মধ্যেও তাকে দেখতে যাবার সময় হয়ে ওঠে না।

কিছু সন্তান আছেন, যারা মাসের শেষে ২০০০/২৫০০ টাকা পাঠান। আর স্বস্তির ঢেকুর তোলেন, মায়ের জন্য অনেক কিছু করে ফেলেছেন। একবার কি ভেবে দেখেছেন, আপনার যাকাত, দানের পরিমাণ সেই টাকার থেকে আরো অনেক বেশি।

সুযোগ থাকলে মায়েদেরকে নিজেদের কাছে রাখুন। আর একান্তই যদি সুযোগ না থাকে (সেটা যে কারণেই হোক), ভালোভাবে থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা করে দিন, নিয়মিত দেখা করে আসুন, খোঁজখবর নিন।

শুধু মুখে বললেই তো হবে না, কারণ আমাদের দেশে বৃদ্ধাশ্রমের সংখ্যা দিন দিন বেড়ে চলেছে। আমাদের কথা এবং কাজ মিলছে না। আজ যাদের অল্প বয়স, তাদের অবশ্যই ভবিষ্যতের ভাবনা মাথায় রাখা উচিত। সন্তান হিসেবে আজ আপনি যা করছেন, আপনার সন্তান যদি আপনার সাথে ঠিক সেই কাজই করে, সহ্য করতে পারবেন তো। সময় থাকতেই আমাদের সাবধান হওয়া উচিত। সব বৃদ্ধ বাবা-মা তাদের সন্তানদের সংস্পর্শে থাকুক। বন্ধ হয়ে যাক সকল বৃদ্ধাশ্রম।

লেখকঃ রিয়াজুল হক, যুগ্ম পরিচালক, বাংলাদেশ ব্যাংক

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..