সুশিক্ষা

বশেমুরবিপ্রবিতে একীভূত হওয়ার দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

প্রতিনিধি, বশেমুরবিপ্রবি: কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ (সিএস) এবং ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের সঙ্গে একীভ‚ত হওয়ার দাবিতে নিয়ে গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) মানববন্ধন করেছে শিক্ষার্থীরা। গতকাল শেখ হাসিনা আইসিটি ইনস্টিটিউটের সিএসই এবং ইইই বিভাগের শিক্ষার্থীরা এ মানববন্ধন ও অবস্থান  কর্মসূচি পালন করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে আয়োজিত এ মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নেন প্রায় ৭০ জন শিক্ষার্থী।

এ সময় ইনস্টিটিউটের  সিএসই বিভাগের ছাত্র সেতু বলেন, ‘সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা দেয়ার নিমিত্তে আমাদের শেখ হাসিনা ইনস্টিটিউট অব আইসিটিতে ভর্তি করানো হলেও তা থেকে বঞ্চিত আমরা। তার ওপর আমাদের ইনস্টিটিউট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। অর্থাৎ আমরাই একমাত্র ব্যাচ যারা  ইনস্টিটিউট থেকে পাস করে বের হবা। বাংলাদেশের অন্য কোথাও এমন নজির নেই। সুতরাং আমাদের একটাই দাবি, আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্ব স্ব বিভাগে সংযুক্ত হতে চাই।’

এ সময় আরেক শিক্ষার্থী ইইই বিভাগের খলিলুর বলেন, ‘আমরা ভর্তি হয়ে একই শিক্ষকদের কোর্স করে পরীক্ষা দিয়ে পাস করেও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হিসেবে আমাদের কোনো স্বীকৃতি নেই। এ দুই বিভাগের প্রায় ১০০ জন শিক্ষার্থীর ক্যারিয়ার নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় খেলা করতে পারে না। আমরা আর ভাসমান অবস্থায় থাকতে চাই না। হয় আমাদের ইনস্টিটিউটে পরবর্তী ব্যাচ ভর্তি করিয়ে পুনরায় চালু করতে হবে, নতুবা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্ব স্ব বিভাগের সঙ্গে সংযুক্ত করতে হবে।’

প্রসঙ্গত, বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্যের খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের অদূরদর্শিতায় মাদারিপুরের শিবচরে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষ থেকে অস্থায়ীভাবে তৈরি হয় শেখ হাসিনা আইসিটি ইনিস্টিটিউট। যেখানে ইটিই,  ইইই এবং সিএসই বিভাগে প্রায় ১০০ জন শিক্ষার্থীকে ভর্তি করানো হয়। এরমধ্যে ইটিই বিভাগের ছয়জনকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইটিইি বিভাগে একীভ‚ত করা হলেও বাকি দুই বিভাগের শিক্ষার্থীদের একীভ‚ত করা হয়নি।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..