বাণিজ্য সংবাদ

বস্তুনিষ্ঠ ক্রেডিট রেটিং করাই ক্রিসলের প্রধান কাজ: মুজাফ্ফর আহমেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশের প্রথম ঋণমান (ক্রেডিট রেটিং) নির্ণয়ের প্রতিষ্ঠান ক্রেডিট রেটিং ইনফরমেশন অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেড (ক্রিসল)। প্রতিষ্ঠানটির প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহী (সিইও) মুজাফ্ফর আহমেদের হাত ধরেই দেশের ব্যাংক বিমাসহ বিভিন্ন বাণিজ্য প্রতিষ্ঠানের ঋণমান নির্ণয় শুরু হয়। তার দেখানো পথ ধরেই দেশের ক্রেডিট রেটিং খাত বর্তমান অবস্থায় আসতে পেরেছে।

সম্প্রতি ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড সেক্রেটারিজ অব বাংলাদেশের (আইসিএসবি) চতুর্থ কাউন্সিলের প্রথম সভায় মুজাফ্ফর আহমেদকে আইসিএসবি’র সভাপতি নির্বাচিত করা হয়। তিনি আইসিএসবি’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও একজন ফেলো সদস্য। তিনি ১৯৯৭-২০০৪ মেয়াদেও ইনস্টিটিউটের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাউন্টিং বিভাগের প্রভাষক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন মুজাফ্ফর আহমেদ । এরপর দীর্ঘ কর্মজীবনে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন করেছেন তিনি।

দেশর ক্রেডিট রেটিং নিয়ে মুজাফ্ফর আহমদ বলেন, ঋণগ্রহীতার ঋণের চাহিদা এবং পরিশোধের সক্ষমতার ওপর একটি স্বাধীন, নিরপেক্ষ, বিচক্ষণ ও পেশাগত মতামতই ক্রেডিট রেটিং। এ মতামতের মধ্যে ঋণগ্রহীতার ঋণ পরিশোধ সেবা, মোট সম্পদ, সম্ভাব্য আয় এবং পণ্য বা সেবা প্রদানের ধরনও প্রতিফলিত হয়, যা সর্বপোরি প্রতিষ্ঠানের মূল্য সংযোজনে কাজে আসে। তবে সিকিউরিটিজ ধারণ বা কেনাবেচার ক্ষেত্রে বা ঋণ মঞ্জুরির ক্ষেত্রে কোনো ধরনের সুপারিশ করা ক্রেডিট রেটিংয়ের কাজ নয়।

সিকিউরিটিজের ইস্যুকারী, আন্ডাররাইটার্স অথবা সরকারসহ বাজারসংশ্লিষ্ট সব আগ্রহী প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে নিরপেক্ষতা বজায় রেখে বস্তুনিষ্ঠ ও সততার সঙ্গে রেটিং করা ক্রিসল রেটিংয়ের মূল কাজ।

তিনি জানান, এশিয়া অঞ্চলের ক্রেডিট রেটিং এজেন্সিগুলোর সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব ক্রেডিট রেটিং এজেন্সিসের (এসিআরএএ) প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ক্রিসল। ২০০২ সালে এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (এডিবি) পৃষ্ঠপোষকতায় এসিআরএএ প্রতিষ্ঠিত হয়। সদস্যদেশগুলোর ক্রেডিট রেটিং প্রতিষ্ঠানের মধ্যে একটি সমন্বয় সাধন করাই এ সংগঠনের উদ্দেশ ছিল। এ সংগঠনটির সদস্য ১৩ থেকে বেড়ে এখন ৩০টিতে দাঁড়িয়েছে।

প্রাথমিক পর্যায়ে কারিগরি সহযোগিতার লক্ষ্যে ক্রিসল বারহাদ (আরএএম) মালয়েশিয়া ও পাকিস্তানের ভিআইএস ক্রেডিট রেটিং কোম্পানি লিমিটেডের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করতে চুক্তিবদ্ধ হয় বলেও জানান মুজাফ্ফর আহমেদ। যদিও আরএএম ক্রিসলের শেয়ার ছেড়ে দিয়েছে কিন্তু এখনও বিশেষ বিশেষ ইস্যুতে তাদের সঙ্গে করেসপন্ডেন্ট সম্পর্ক রয়েছে বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশে ইসলামী বন্ডের (সুকুক) বাজার উন্নয়নে ক্রিসল বাহারাইনের ইসলামিক ইন্টারন্যাশনাল এজেন্সির সঙ্গেও যৌথভাবে কাজ করছে।

বৈশ্বিক দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে এগিয়ে চলা রেটিং এজেন্সি ক্রিসল একটি পাবলিক লিমিটেড কোম্পানি। এর উল্লেখযোগ্য-সংখ্যক শেয়ার ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) হাতে। পাকিস্তানের ফয়সাল ব্যাংক লিমিটেড ও ভিআইএস ক্রেডিট রেটিং এজেন্সি লিমিটেড এবং দেশের আটজন ব্যক্তি ক্রিসলের উদ্যোক্তা পরিচালক। একটি প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ারগ্রহীতা এবং মুজাফ্ফর আহমেদ ছাড়া অন্য শেয়ারগ্রহীতারা ক্রিসলের শেয়ার মূলধনের ১০ শতাংশের কম শেয়ার ধারণ করছে।

ক্রিসল বন্ড রেটিং, এন্টিটি বা ইস্যুয়ার রেটিং এবং ব্যাংক এক্সপোজার রেটিং, প্রকল্প অর্থায়ন রেটিং, ঋণ প্রস্তাবনা রেটিংসহ বিশেষ কিছু বিষয়ে রেটিং সেবা দিয়ে থাকে। এছাড়া খাতভিত্তিক গবেষণা ও প্রশিক্ষণের ওপরও জোর দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। ক্রিসল দেশে কার্যরত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মৌলভিত্তি ও খাতভিত্তিক সক্ষমতার মতো জাতীয় অর্থনৈতিক তথ্যের বড় একটি ভাণ্ডার হিসেবেও কাজ করছে বলে জানান এর প্রেসিডেন্ট ও সিইও মুজাফ্ফর আহমেদ।

দীঘ ৪২ বছরের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন এ ব্যক্তির নেতৃত্বে এ ক্রেডিট রেটিং এজেন্সিতে বর্তমানে একটি দক্ষ কর্মী বাহিনী কাজ করছে। দেশের বড় বড় অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানই ক্রিসলের মাধ্যমে তাদের ক্রেডিট রেটিং করাচ্ছে। ২০১৭ সালে ক্রিসল প্রথমবারের মতো ‘এ’ ক্যাটেগরিভুক্ত প্রথম ১০টি পৌরসভার রেটিং সফলভাবে করতে সক্ষম হয়। 

ক্রিসল প্রেসিডেন্ট বলেন, ক্রেডিট রেটিংয়ের সুফল অনেক। এর সুফল ভোগ করে সব পক্ষ। বর্তমানে দ্রুত প্রবৃদ্ধির অর্থনীতিকে আরও গতিশীল ও প্রাণোদ্দীপ্ত করতে পারে এ ক্রেডিট রেটিং।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..