সারা বাংলা

বাগেরহাটে হরিণের ১৯ চামড়া জব্দ গ্রেপ্তার দুই

শেয়ার বিজ ডেস্ক: বাগেরহাটে সুন্দরবন থেকে শিকার করা হরিণের ১৯টি চামড়াসহ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। গতকাল শনিবার দুপুরে বাগেরহাটের পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিং করে এ তথ্য জানানো হয়। আগের দিন রাত পৌনে ২টার দিকে শরণখোলা উপজেলা সদর থেকে চামড়াসহ তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ। খবর: বিডিনিউজ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার রাজৈর গ্রামের মো. মতিন হাওলাদারের ছেলে মো. ইলিয়াস হাওলাদার (৩৫) এবং একই উপজেলার ভদ্রপাড়া গ্রামের মো. মোশারেফ শেখের ছেলে মো. মনিরুল ইসলাম শেখ (৪৫)। প্রেস ব্রিফিংয়ে জেলার পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায় জানান, বিভিন্ন বয়সের চিত্রল হরিণের এসব চামড়া লবণ দিয়ে প্রক্রিয়াজাত করে রাখা হয়েছিল।

এত হরিণের চামড়া এক সঙ্গে আগে কখনও উদ্ধার হয়নি জানিয়ে তিনি বলেন, একটি পাচারকারী চক্র সুন্দরবন থেকে হরিণ শিকার করে চামড়া পাচারের উদ্দেশ্যে সুন্দরবনসংলগ্ন শরণখোলা উপজেলায় জড়ো হয়। এমন তথ্যের ভিত্তিতে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযানে যায়। এ সময় পাচারকারী চক্র পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালানোর চেষ্টা করলে ধাওয়া করে ইলিয়াস ও মনিরুলকে আটক করে।

পুলিশ সুপার বলেন, ‘তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী শরণখোলা উপজেলার ভদ্রপাড়া গ্রামে মনিরের বাড়ির কাঠের দোতলা ঘরের পাটাতনের ওপর দুটি ব্যাগে রাখা মোট ১৯টি ছোট-বড় হরিণের চামড়া উদ্ধার করা হয়।’ এ চক্র সুন্দরবন থেকে হরিণ শিকার করে তার চামড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে পাচারের উদ্দেশ্যে রেখেছিল জানিয়ে তিনি জানান, গ্রেপ্তারদের চক্রের সঙ্গে আর কারা আছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

এর আগে গত মঙ্গলবার বাগেরহাটের সুন্দরবনসংলগ্ন শরণখোলা উপজেলার রায়েন্দা পাঁচ রাস্তার মোড়ের বাসস্ট্যান্ড থেকে রয়েল বেঙ্গল টাইগারের চামড়াসহ এক পাচারকারীকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব ও বনবিভাগ।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..