প্রচ্ছদ শেষ পাতা

বিইআরসির পদক্ষেপ জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট

এলপি গ্যাসের দাম নির্ধারণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: এলপি গ্যাসের দাম নির্ধারণে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) কী কী পদক্ষেপ নিয়েছে, তা জানাতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আগামী এক মাসের মধ্যে বিইআরসিকে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়ে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। গতকাল বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।
আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়–য়া। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এবিএম আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।
ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়–য়া গণমাধ্যমকে বলেন, ‘এলপি গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে ২০১৬ সালে একটি রিট দায়ের করা হয়েছিল। সেই রিটের শুনানি নিয়ে আদালত রুল জারি করেন ও মূল্য নির্ধারণে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের (বিইআরসি) পদক্ষেপ জানতে চান। কিন্তু এরপর প্রায় তিন বছর কেটে গেলেও বিইআরসি গ্যাসের মূল্য নিয়ন্ত্রণে তাদের পদক্ষেপ সম্পর্কে আদালতকে জানায়নি। তাই আজ হাইকোর্টে আরেকটি আবেদন করে বিইআরসি মূল্য নির্ধারণে কী কী পদক্ষেপ নিয়েছে, তা জানতে চাওয়া হয়। বিইআরসিকে আগামী ৩০ দিনের মধ্যে এ বিষয়ে লিখিত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।’
প্রসঙ্গত, বেশ কয়েক বছর ধরে গ্রামে ও শহরে বাড়ছে পরিবেশবান্ধব এলপি (তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম) গ্যাসের চাহিদা। কিন্তু চাহিদা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে দামও বাড়ছে এ গ্যাসের। যদিও এশিয়ার বিভিন্ন দেশের তুলনায় বাংলাদেশেই এলপিজির দাম অনেক বেশি।
২০২০ সালের মধ্যে দেশের ৭০ শতাংশ আবাসিক জ্বালানি চাহিদা এলপি গ্যাসের মাধ্যমে মেটানোর ঘোষণা দিয়েছে সরকার। আর ওই গ্যাসের প্রায় পুরোটাই বেসরকারি উদ্যোগে আমদানি করা হয়। বর্তমানে দেশে সাড়ে ১২ কেজির একটি এলপি গ্যাস সিলিন্ডারের দাম স্থানভেদে ১১৫০ থেকে ১২৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কিন্তু পার্শ^বর্তী দেশ ভারতে এ এলপিজির দাম প্রায় অর্ধেক।
ইন্ডিয়ান পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের তথ্যমতে, ভারতে এক কেজি এলপিজির গড় দাম প্রায় ৬০ টাকা। সেই হিসেবে সাড়ে ১২ কেজির দাম হয় ৭৫০ টাকা। ভারতের পশ্চিমবঙ্গে সাড়ে ১২ কেজি এলপিজির সিলিন্ডারের দাম পড়ে ৭৪০ টাকা, মুম্বাইয়ে ৭৬০ টাকা ও দিল্লিতে ৭৫০ টাকা। অন্যান্য রাজ্যগুলোতেও দাম প্রায় একই রকম।
শ্রীলঙ্কায় সাড়ে ১২ কেজি সিলিন্ডার ভর্তি গ্যাসের দাম পড়ে এক হাজার ৪৩১ শ্রীলঙ্কান রুপি, বাংলাদেশি টাকায় যা ৭০০ টাকা। মালয়েশিয়ায় ১৪ কেজি এলপিজি ভর্তি সিলিন্ডারের দাম ৪২ রিঙ্গিত বা ৮৫৫ টাকা। সেই হিসেবে সাড়ে ১২ কেজির দাম পরে ৭৬৫ টাকা। নেপালে ১৪ কেজি এলপিজি সিলিন্ডারের দাম পড়ে এক হাজার ৪০০ নেপালি রুপি বা প্রায় এক হাজার টাকা। এ হিসেবে বাংলাদেশি টাকায় সাড়ে ১২ কেজি এলপিজির দাম পড়ে ৯০০ টাকা। আর ভুটানে দাম পড়ে ৯৮০ টাকা।

সর্বশেষ..