আজকের পত্রিকা দিনের খবর পুঁজিবাজার বাণিজ্য সংবাদ শেষ পাতা সর্বশেষ সংবাদ

বিএসইসিতে খায়রুল আমলের অবসান

নতুন চেয়ারম্যান হচ্ছেন শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম!

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নতুন চেয়ারম্যান হচ্ছেন অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম। সংশ্লিষ্ট সূত্রে বিষয়টি জানা গেছে। তিনি চেয়ারম্যানের আসনে বসার মধ্যে দিয়ে শেষ হচ্ছে ড. এম খায়রুল হোসেনের আমল। ২০১০ সালে বিএসইসির কমিশন নতুন করে সাজানোর পর থেকে এখন পর্যন্ত তিনি বিএসইসির চেয়ারম্যান হিসাবে কর্মরত রয়েছেন।

অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম বর্তমানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং অ্যান্ড ইন্সুরেন্স বিভাগের অধ্যাপক ও সাধারণ বীমা করপোরেশনের (এসবিসি) চেয়ারম্যান হিসাবে কর্মরত রয়েছেন। এছাড়া বিএসইসিতে আরো ৩ জন কমিশনার নিয়োগ পাচ্ছেন। খুব শিগগির এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে বলে সূত্র নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, বিএসইসির নতুন তিন জন কমিশনারের তালিকায় রয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগের অধ্যাপক ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ, অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সাবেক অতিরিক্ত সচিব অজিত কুমার পাল এফসিএ ও কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজম্যান্ট অ্যাকাউন্ট্যান্ট একেএম দেলোয়ার হোসেন।

অধ্যাপক ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ ও অজিত কুমার পাল দুজনেই বর্তমানে জনতা ব্যাংকের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। আর একেএম দেলোয়ার হোসেন বর্তমানে বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের পরিচালক হিসেবে শিল্প মন্ত্রণালয়ে সংযুক্ত রয়েছেন। ১৫ মে থেকে বিএসইসির নতুন চেয়ারম্যানের মেয়াদ শুরু হবে। আর তিন জন কমিশনারের পদ ফাঁকা থাকায় তারা যেদিন যোগ দিবেন সেদিন থেকেইমেয়াদ কার্যকর হবে।

প্রসঙ্গত ২০১০ সালে পুঁজিবাজারে ধসের পর বিএসইসির কমিশন নতুন করে সাজানো হয়। এই সময়ে নতুন কমিশনের দায়িত্ব পান রাষ্ট্রীয় মালিকানার বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠান আইসিবি’র চেয়ারম্যান ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যানের অধ্যাপক প্রফেসর ড. এম খায়রুল হোসেন।

নিয়োগ পাওয়ার পর দুইদফায় তার মেয়াদ বাড়ানো হয়। তার আমলে বিএসইসির কিছু আইন সংস্কার করা হলেও দুর্বল কোম্পানির তালিকাভুক্তির অনুমোদন দিয়ে সমলোচনার মুখে পড়েন।

অন্যদিকে এই সময়ে কমিশনার হিসেবে নিয়োগ পান চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক হেলাল উদ্দিন নিজামী এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইডিএলসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আরিফ খান। পরে আরিফ খান স্বেচ্ছায় দায়িত্ব ছেড়ে যান।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..