প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

বিজনেস আইডিয়া:পানির ব্যবসা

খলিলুর রহমান : নিজের পায়ে দাঁড়াতে হলে আপনাকে উদ্যোগী হতে হবে। আর উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য ঠিক করতে হবে কী দিয়ে শুরু করবেন। এজন্য দরকার অল্প পুঁজিতে শুরু করা যায় এমন ব্যবসা। এ ধরনের উদ্যোক্তার পাশে দাঁড়াতে শেয়ার বিজের সাপ্তাহিক আয়োজন

আমাদের দেশে সুপেয় পানির অভাব রয়েছে। এ কারণে টং দোকান থেকে শুরু করে করপোরেট অফিসÑসবখানেই পাওয়া যায় পরিশোধিত জারের পানি।

প্রথমে ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্টের মাধ্যমে পানি শোধন করা হয়। এরপর জারে করে তা বিপণন করেন

ব্যবসায়ীরা। রাজধানীসহ দেশের প্রায় সব জেলায় অনেক ব্যবসায়ী স্বল্পপরিসরে পানি শোধন করে তা পানের উপযোগী করে তুলছেন। এ ব্যবসায় আসতে পারেন আপনিও।

শুরুর কথা

পানি শোধন করার জন্য দরকার ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট। এতে পানি রাখার জন্য একটি রিজার্ভ ট্যাংক দরকার। একই সঙ্গে পানি সরবরাহ নিশ্চিত করতে হবে। এরপর নিয়মিত পানি বিশুদ্ধ কিনা, তা পরীক্ষা করতে হবে। এজন্য একটি ল্যাবরেটরি তৈরি করা দরকার। একজন রসায়নবিদ নিয়োগ দেওয়া যেতে পারে। তিনিই পানির বিশুদ্ধতা নিশ্চিত করতে পারবেন। বিএসটিআই’র কোড অনুযায়ী ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্টের পুরো অংশ পরিষ্কার ও জীবাণুমুক্ত রাখতে হবে।

ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট স্থাপনের জন্য সামান্য জায়গা হলেই চলে। সব মিলিয়ে তিন-চার কাঠা জমি প্রয়োজন। বিএসটিআই’র নির্দেশনা অনুযায়ী প্লান্টটি তৈরি করতে হবে। যথাযথ প্রযুক্তির সংমিশ্রণে তা সাজাতে ১০ থেকে ১৫ লাখ টাকা খরচ হবে।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

পানির ব্যবসা শুরুর জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র থাকতে হবে। কাগজপত্রগুলো হচ্ছেÑট্রেড লাইসেন্স, টিন সার্টিফিকেট, ইনকরপোরেশন সার্টিফিকেট, ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন, ট্রেডমার্ক রেজিস্ট্রেশন, বিএসটিআই সার্টিফিকেট, আইসিডিডিআর, বি সার্টিফিকেট প্রভৃতি।

যেভাবে পানি বিশুদ্ধ করা হয়

পানি বিশুদ্ধ করার জন্য ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্টের স্টোরেজ ট্যাংক থেকে প্লান্টের ম্যাঙ্গানিজ ডাই-অক্সাইড সিলিন্ডারে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। এখানে পানির আয়রন অপসারণ করা হয়। এরপর বিশেষ এক ধরনের সিলিন্ডারে ঢোকানো হয় পানি। এর আগে কার্বন ফিল্টারের মাধ্যমে ময়লা ও দুর্গন্ধ দূর করে নেওয়া হয়। সবশেষে সিলিন্ডার থেকে পানি নেওয়া হয় জারে।

ব্যবসার পরিধি বুঝে কয়েকটি জার কিনে নিন। পিইটি জার পেয়ে যাবেন ২৫০ থেকে ৩০০ টাকার মধ্যে। আর পিসি জারের দাম ৫০০ থেকে ৫৫০ টাকা। রাজধানীর স্টেডিয়াম মার্কেট, গুলিস্তান ও নিউমার্কেটে পাওয়া যায় পেট ও পিসি জার। চাইলে বোতলজাত করেও বিপণন করতে পারেন।

নানা রেস্টুরেন্ট, অফিস, চা দোকান, ডিপার্টমেন্ট স্টোরসহ বাসাবাড়িতে জনসংযোগ বাড়ান। পানি সরবরাহের অর্ডার নেওয়ার জন্য তাদের সঙ্গে চুক্তি করতে পারেন।

 

সাংবাদিক