ফিচার

বিজনেস আইডিয়া : বাতিল কাপড়ে নতুন পোশাক

নিজের পায়ে দাঁড়াতে হলে আপনাকে উদ্যোগী হতে হবে। আর উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য ঠিক করতে হবে কী দিয়ে শুরু করবেন। এজন্য দরকার অল্প পুঁজিতে শুরু করা যায়Ñএমন ব্যবসা। এ ধরনের উদ্যোক্তার পাশে দাঁড়াতে শেয়ার বিজের সাপ্তাহিক আয়োজন

বাড়ির সবচেয়ে ছোট্ট মানুষটির জন্য দরকার সুন্দর নতুন পোশাক। পোশাকটি তার মনমতো হওয়া দরকার। তার পছন্দের পোশাক বানিয়ে আপনিও ব্যবসা শুরু করতে পারেন। শিশুদের পোশাকের বৈচিত্র্যময় সম্ভার রাঙিয়ে তুলতে পারেন আপনিও। টুকরো কাপড় জোড়া দিয়ে ফ্রক, শার্ট, নিমা, ফতুয়া প্রভৃতি বানাতে পারেন।

কাপড় সংগ্রহ

তৈরি পোশাক কারখানা থেকে নানা ধরনের কাপড় সংগ্রহ করতে পারেন। পুরান ঢাকার ইসলামপুর থেকে আনতে পারেন কাপড়। এ ছাড়া টঙ্গী রেলস্টেশনের পাশে গড়ে ওঠা কাপড়ের বাজার থেকে এক সঙ্গে অনেক কাপড় কিনে নিতে পারেন।

স্থান নির্বাচন

নিজস্ব দোকান থাকলে ভালো। না থাকলেও সমস্যা নেই। এমন পরিস্থিতিতে নিজের থাকার জায়গাতেই শুরু করতে পারেন নতুন পোশাক তৈরি।

কর্মী

দক্ষ সেলাই কর্মী নিয়োগ দেওয়া ভালো। কাপড়ের গুণগতমান বোঝে এমন কর্মী রাখতে পারেন। চাইলে তাদের সঙ্গে থেকে আপনিও সেলাইয়ের কাজ শিখে নিতে পারেন। তা ছাড়া নতুন ট্রেন্ড সম্পর্কে ধারণা রাখতে পারেন। আর কাপড়ের মান সম্পর্কে দক্ষ হয়ে উঠুন।

 

পুঁজি ও আয়

সম্ভাব্য পুঁজি চল্লিশ হাজার থেকে পঞ্চাশ টাকা। মাসে ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা আয় করা সম্ভব।

ক্রেতা

পোশাক বিক্রির দোকানসহ নানা শোরুমে এসব কাপড় দিয়ে তৈরি পোশাক বিক্রি করতে পারেন। শুরুর দিকে বাড়িতে বাড়িতে ফেরি করতে পারেন। ভ্যানে বিক্রি করতে পারেন। এসব কাজের জন্য আলাদা কর্মী নিয়োগ দিতে পারেন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..