স্পোর্টস

বিপিএলের নতুন চ্যাম্পিয়ন খুলনা নাকি রাজশাহী?

ক্রীড়া প্রতিবেদক : গত দেড় মাস ধরে ২২ গজে ব্যাটে-বলে ঝড় উঠেছিল। কয়েকঘণ্টা পরই বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) পর্দা নামার মধ্যে দিয়ে তা শেষ হবে। কিন্তু তার আগে প্রশ্ন উঠেছে এবারের এ টুর্নামেন্টে নতুন চ্যাম্পিয়ন হচ্ছে কারাÑখুলনা টাইগার্স নাকি রাজশাহী রয়্যালস।

আজ সন্ধ্যা ৭টায় মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে বিপিএল ট্রফি জিততে নামবে খুলনা ও রাজশাহী। গতকাল বিকালে সেখানেই সেই ট্রফি হাতে আনুষ্ঠানিক ফটোসেশনপর্ব সারেন খুলনা অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম আর রাজশাহী অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল। সেখানে হাসিমুখ ছিল দুই অধিনায়কেরই। তবে শেষ হাসি তো হাসবেন একজন, একজনকে শেষ করতে হবে; না পাওয়ার আক্ষেপ নিয়ে। তবে যেই দলই জিতুক, এবারের বিপিএল পাবে নতুন চ্যাম্পিয়ন। এর আগে ট্রফি জিতেনি খুলনা-রাজশাহীর মধ্যে কোনো দলই।

বিপিএল ফাইনালের আগে অবশ্য রাজশাহীর চেয়ে এগিয়ে থাকছে খুলনা। চলতি টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত তিনবার মুখোমুখি হয়েছে এ দুই দল। যে লড়াইয়ে খুলনা জিতেছে দুবার। বিপরীতে রাজশাহীর জয় একটিতে। শুধু দলীয় লড়াইয়ে নয়, একক কৃতিত্বেও ফাইনালের আগ পর্যন্ত খুলনা বেশ দাপটের সঙ্গে এগিয়ে থাকছে।

চলতি বিপিএলে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ রান তোলার তালিকায় শীর্ষ দুইয়ে রয়েছেন খুলনার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ও রাইলি রুশো। ১৩ ম্যাচে ৪৭০ রান করেছেন মুশফিক। সমান-সংখ্যক ম্যাচে ৪৫৮ রান রুশোর। এ তালিকায় তিনে রাজশাহী রয়্যালসের শোয়েব মালিক। ১৪ ম্যাচে তিনি করেছেন ৪৪৬ রান। ব্যাটিংয়ের শীর্ষ দশে আছেন রাজশাহীর রয়্যালসের আরও দুই ব্যাটসম্যান। ১৪ ম্যাচে ৪৩০ রান নিয়ে লিটন দাস এবং ৩৬০ রান নিয়ে অলরাউন্ডার আফিফ হোসেন

এদিকে বোলিংয়েও দাপট খুলনার। সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির শীর্ষ দশের তিনজনই চিংড়ির শহরের দলটির। ২০ উইকেট নিয়ে যৌথভাবে এক নম্বরে রংপুর রেঞ্জার্সের মোস্তাফিজুর রহমান ও চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের রুবেল হোসেন। তবে এই দুজনের দল ফাইনালের আগেই বিদায় নিয়েছে। তাই তাদের সামনে উইকেট সংখ্যা বাড়ানোর আর কোনো সুযোগ নেই। তবে এই দুজনকে ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাব্য অবস্থানে দাঁড়িয়ে এখন খুলনা টাইগার্সের তিন পেসার, রবি ফ্রাইলিঙ্ক, মোহাম্মদ আমির ও শহিদুল ইসলাম। ১৩ ম্যাচে ফ্রাইলিঙ্কের উইকেট ১৯টি। আমির ও শহিদুলের ১২ ম্যাচে শিকার সংখ্যা ১৮।

বোলিংয়ের এ শীর্ষ দলে রাজশাহী রয়্যালসের রয়েছেন শুধু মোহাম্মদ ইরফান। পাকিস্তানি এ পেসার ১১ ম্যাচে ১২ উইকেট নিয়ে সেরা উইকেট শিকারির তালিকার ১০ নম্বরে আছেন।

চলতি টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত স্থানীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে একমাত্র সেঞ্চুরিয়ান খুলনা টাইগার্সের ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত। তার রানই এখন ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ। এদিকে এক ম্যাচে সেরা বোলিং পারফরম্যান্সও খুলনার। দলটির পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ আমির ১৭ রানে নিয়েছেন ৬ উইকেট।

খুলনা এবারের বিপিএলে সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জেতার অনন্য রেকর্ড নিজেদের করে নিয়েছে। ১৭ জানুয়ারির রাতে ফাইনালে নামার আগে এতসব পরিসংখ্যান খুলনা টাইগার্সের ফেভারিট বলছে। তবে রাজশাহী রয়্যালস কিন্তু আজ কোনোভাবেই ছেড়ে কথা বলবে না। কেননা দলটিতে রয়েছেন আন্দ্রে রাসেল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের এ অলরাউন্ডার কিন্তু একাই পদ্মা পাড়ের দলটিকে এনে দিতে পারেন প্রথম বিপিএল শিরোপা। যার রেশটা তিনি গত পরশু দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচে দেখিয়েছেন। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে ২২ বলে তিনি একাই খেলেন ৫৪ রানের ঝড়ো ইনিংস। তবে ব্যাপারটি নিয়ে ভাবছে না খুলনা। দলটি শুধু চোখ রাখছে শিরোপায়, যা জয় করতে আজ মাঠে সেরাটাই দেওয়ার কথা বলেছেন কোচ থেকে শুরু করে সবাই। 

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..