প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

বিপিএলের সেরা একাদশে মাশরাফি-সাকিব-মাহমুদউল্লাহ

ক্রীড়া প্রতিবেদক: দেখতে দেখতে গত পরশু পর্দা উঠেছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) পঞ্চম আসরের। এরই মধ্যে এ টুর্নামেন্টের সেরা একাদশ নির্বাচন করেছে ক্রিকেটের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ইএসপিএন-ক্রিকইনফো, যেখানে দেশি তারকাদের মধ্যে জায়গা পেয়েছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা, সাকিব আল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মোহাম্মদ মিথুন। এছাড়া রয়েছেন ক্রিস গেইল, এভিন লুইস, সিকান্দার রাজা, কার্লোস ব্রাথওয়েট, সুনিল নারিন, হাসান আলি ও রশিদ খান।

পুরো টুর্নামেন্টে ক্রিকেটের ফর্ম বিচার বিশ্লেষণ করে ইএসপিএন-ক্রিকইনফো সেরা একাদশ করেছে, যেখানে ওপেনার হিসেবে জায়গা হয়েছে ক্রিস গেইল (১১ ম্যাচে ৪৮৫ রান। দুটি সেঞ্চুরি ও দুটি হাফ সেঞ্চুরি) ও এভিন লুইসের (১২ ম্যাচে ৩৯৬ রান)।

এদিকে মোহাম্মদ মিথুন রয়েছেন ব্যাটিং লাইন আপের তিনে। রংপুরের হয়ে এ ডানহাতি ১৫ ম্যাচে ১১৭.৫০ স্ট্রাইক রেটে করেছেন ৩২৯ রান। চারে সিকান্দার রাজা। চিটাগং ভাইকিংস হারলেও জিম্বাবুয়ের এ ক্রিকেটারের ১১ ম্যাচে ২৭৮ রান করে জায়গা করে নিয়েছেন ইএসপিএন-ক্রিকইনফোর সেরা একাদশে।

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ রয়েছেন ব্যাটিং পজিশনে পাঁচ নম্বরে। খুলনা টাইটানসের এ অধিনায়ক ১২ ম্যাচে ১৩০ স্ট্রাইক রেটে করেছেন ২৭৮ রান। দলকে দিয়েছেন আবার সামনে থেকে নেতৃত্ব, যে কারণে তিনিও ঠাঁই পেয়েছেন বিপিএল সেরা একাদশে।

খুলনা টাইটানসের হয়ে কার্লোস ব্রাথওয়েট শেষ দিকে ব্যাটিংয়ে নেমে ঝড় তুলেছিলেন। ১২ ম্যাচে ১৫৮.১৮ স্ট্রাইক রেটে ২৫০ রান তাই প্রমাণ করে। কিন্তু বিপিএল সেরা একাদশে তিনি জায়গা করেছেন ব্যাটিং পজিশনের ছয়ে।

বল হাতে ছিলেন চেনা ছন্দে, কিন্তু ব্যাটসম্যান সাকিব আল হাসানকে এবারের বিপিএলে ঠিক খুঁজে পাওয়া যায়নি। ১৩ ম্যাচে ঢাকার অধিনায়ক ২১১ রানের পাশাপাশি নেন সর্বোচ্চ ২২ উইকেট। তারপরও বিপিএল সেরা একাদশে সাত নম্বরে রয়েছেন এ অলরাউন্ডার।

১২ ম্যাচে ২০০ রানের পাশাপাশি ১১ উইকেট নিয়ে সুনিল নারিন রয়েছেন বিপিএল সেরা একাদশে অষ্টম স্থানে।

কখনও ব্যাট হাতে দলের প্রয়োজনে নেমেছেন তিনে। কম বলে দ্রুত কার্যকরী রান তুলে রংপুরকে বাঁচিয়েছেন দুটি ম্যাচে, কিন্তু বিপিএল সেরা একাদশে মাশরাফি বিন মুর্তজা জায়গা করে নিয়েছেন মূলত বোলিং দিয়ে। ১৪ ম্যাচে ১৫ উইকেট নিয়েছেন এ ডানহাতি পেসার। তবে সব ছাপিয়ে প্রশংসিত হয়েছেন তিনি নেতৃত্বগুণে।

এবারেই প্রথম বিপিএলে খেললেন হাসান আলি। বল হাতে ৯ ম্যাচে ১৬ উইকেট নিয়ে করলেন বাজিমাত। কিন্তু কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসকে শিরোপা জেতাতে পারেননি তিনি। তারপরও ব্যক্তিগত নৈপুণ্যে এ ডানহাতি পেসার জায়গা করে নিয়েছেন বিপিএল সেরা একাদশে।

এদিকে বিপিএল একাদশে ১১তম ক্রিকেটার হিসেবে জায়গা পেয়েছেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের রশিদ খান। অবশ্য ৭ ম্যাচে এ লেগ স্পিনার ৪.৪৬ ইকোনমি রেটে নিয়েছেন ছয়টি, কিন্তু এবারের বিপিএলে তিনি ছিলেন সবচেয়ে কম খরুচে বোলার।