দিনের খবর প্রচ্ছদ প্রথম পাতা

বিমা কোম্পানির পক্ষে দালালি করছে আইডিআরএ?

প্রিমিয়াম পরিশোধে গ্রাহককে এসএমএস

সাইফুল্লাহ আমান: প্রিমিয়াম পরিশোধের সময় ঘনিয়ে এলে গ্রাহককে স্মরণ করিয়ে দেয় সংশ্লিষ্ট বিমা কোম্পানি। এটি কোম্পানির রুটিন কার্যক্রমের অংশ। কিন্তু নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ কোম্পানির পক্ষে এমন বার্তা পাঠানোর বিষয়ে কোনো আইনি বিধান নেই। তা সত্ত্বেও বিভিন্ন বিমা কোম্পানির পক্ষে সরাসরি গ্রাহকদের বিমার প্রিমিয়াম পরিশোধের বিষয়ে তাগিদ দিয়ে এসএমএস পাঠাচ্ছে বিমা খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)। বিষয়টি নীতিবিরুদ্ধ ও অপ্রয়োজনীয় বলে উল্লেখ করেছেন বিশেষজ্ঞরা। নিয়ন্ত্রক সংস্থা এ ধরনের এসএমএস দিতে পারে কি না, সে বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তারা।

করোনাকালে সব খাতই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সব ধরনের ব্যাংকঋণের কিস্তি পরিশোধের বিষয়ে ছাড় দেয় নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ ব্যাংক। ব্যাংকগুলোও সে নির্দেশ পরিপালন করেছে। কিন্তু মহামারির এ সময়েও বিমা কোম্পানিগুলো প্রিমিয়াম পরিশোধের বিষয়ে কোনো ছাড় দেয়নি। নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষও এ বিষয়ে কোনো উদ্যোগ নেয়নি। উল্টো প্রিমিয়াম পরিশোধের বিষয়ে কোম্পানিগুলোর পক্ষে গ্রাহকদের খুদে বার্তা পাঠিয়ে তাগাদা দিচ্ছে আইডিআরএ।

আমেরিকান লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি মেটলাইফের একাধিক গ্রাহক জানান, প্রিমিয়াম পরিশোধে কোম্পানির পক্ষ থেকে এসএমএস পাঠিয়ে তাগাদা দেওয়ার বিষয়টি নিয়মিতই ঘটে। কিন্তু এই প্রথম নিয়ন্ত্রক সংস্থা থেকে মেটলাইফের পক্ষে তাগাদা দেওয়া হলো। এ বিষয়ে আইডিআরএ থেকে পাঠানো এসএমএসে উল্লেখ করা হয়, ‘প্রিয় গ্রাহক, আমেরিকান লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিতে (মেটলাইফ) আপনার পলিসি নম্বরের পরবর্তী প্রিমিয়াম জমা দেওয়ার শেষ তারিখ…। কেবল মেটলাইফ নয়, অন্যান্য বিমা কোম্পানির পক্ষেও এমন এসএমএস পাঠানো হয়েছে বলে আইডিআরএ’র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ কোনো কোম্পানির পক্ষে এভাবে তাগাদা দিতে পারে কি না, সে বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হয় আইডিআরএ’র আইন অনুবিভাগ ও ফোকাল পয়েন্ট শুদ্ধাচার বিভাগের পরিচালক আরিফুল হকের সঙ্গে। এ বিষয়ে তিনি শেয়ার বিজকে বলেন, আইডিআরএ’র পক্ষ থেকে এমন কোনো বার্তা দেওয়ার তথ্য তার কাছে নেই। এমন ঘটনা হওয়ার কথা নয় বলেও জানান তিনি। তিনি জানান, এ বিষয়ে ভালো তথ্য দিতে পারবেন গবেষণা ও উন্নয়ন পরিচালক শাহ আলম। পরে শাহ আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনিও জানান, এমন কোনো ঘটনা তার জানা নেই। তবে প্রতিটি বিমা কোম্পানির পক্ষ থেকে পলিসি হোল্ডারদের এ বার্তা পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানান তিনি।

কোন আইনের ভিত্তিতে এমন বার্তা দেওয়া হচ্ছে সে বিষয়ে জানতে চাইলে শাহ আলম বলেন, এরকম কোনো আইন বা বিধিবিধান নেই। কিন্তু গ্রাহকের স্বার্থসংশ্লিষ্ট সব বিষয় তারা দেখতে পারে বলে মন্তব্য করেন শাহ আলম।

এদিকে নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষের এ ধরনের বার্তা পাঠানোর বিষয়টিকে সম্পূর্ণ নিয়মবহির্ভূত এবং এটি করা হলে তা স্বার্থের সংঘাত দেখা দিতে পারে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং অ্যান্ড ইন্স্যুরেন্স বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মাইনুদ্দিন বলেন, আইডিআরএ’র কাজ হলো গ্রাহকের স্বার্থ দেখা। গ্রাহকের বিমা দাবি-সংক্রান্ত যত ধরনের অভিযোগ আছে তা নিষ্পত্তির দায়িত্ব পালন করবে আইডিআরএ। কিন্তু বিভিন্ন বিমা কোম্পানির পক্ষে গ্রাহকদের সরাসরি তাগাদা দেওয়া নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাজ হতে পারে না।

একই বিষয়ে মতামত জানতে যোগাযোগ করা হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং অ্যান্ড ইন্স্যুরেন্স বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক মুজাহিদুল ইসলামের সঙ্গে। তিনি বলেন, আইডিআরএ’র অনেক কাজ আছে। গ্রাহকের স্বার্থসংশ্লিষ্ট সব ধরনের কাজ করতে পারে আইডিআরএ। কিন্তু বিমা কোম্পানির পক্ষ থেকে এ ধরনের তাগাদা দেওয়ার অধিকার নিয়ন্ত্রক সংস্থার নেই এবং তারা এ কাজ করতে পারে না। বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাজ হলো গ্রাহকের বিভিন্ন অভিযোগ সমাধান করে বিমা কোম্পানিকে জরিমানা করা। গ্রাহকের বিভিন্ন অভিযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থায় জমে থাকে। কিন্তু সেগুলোর কোনো সুরাহা হয় না। অথচ কোম্পানির পক্ষ থেকে গ্রাহকদের বার্তা পাঠিয়ে প্রিমিয়াম প্রদানে তাগাদা দেওয়া হচ্ছে। এটা সম্পূর্ণ বেআইনি ও নীতিবিরুদ্ধ।

তিনি আরও বলেন, অন্য কোনো নিয়ন্ত্রক সংস্থা এ কাজগুলো তো করে না। বাংলাদেশ ব্যাংকের উদাহরণ দিয়ে এই শিক্ষাবিদ বলেন, কোনো ব্যাংকের খেলাপি ঋণের ব্যাপারে সরাসরি গ্রাহককে তো বাংলাদেশ ব্যাংক তাগাদা দেয় না। বাংলাদেশ ব্যাংক বলবে ব্যাংকগুলোকে। কিন্তু গ্রাহককে বলার কোনো অধিকার বা আইনি ক্ষমতা তাদের দেওয়া হয়নি।

অভিযোগকারী গ্রাহকরা বলেন, তারা বিভিন্ন বিমা কোম্পানির নামে বেশকিছু অভিযোগ করেছেন আইডিআরএ’তে। তাদের সেসব বিষয়ে কোনো সমাধান এখনও তারা পাননি। অথচ প্রিমিয়াম জমা দেওয়ার এসএমএস করে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিমা কোম্পানির পক্ষ থেকে তাদের তাগাদা দিচ্ছে।

এ বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হলে আইডিআরএ’র চেয়ারম্যান এম মোশাররফ হোসেন শেয়ার বিজকে জানান, প্রিমিয়াম জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে বিভিন্ন কোম্পানির গ্রাহকদের আইডিআরএ’র পক্ষ থেকে এসএমএস পাঠানোর বিষয়টি গ্রাহকের স্বার্থসংশ্লিষ্ট।

কোন আইনের ক্ষমতাবলে আইডিআরএ এভাবে তাগিদ দিচ্ছে সে ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এক্ষেত্রে তাদের কোনো নতুন আইনের প্রয়োজন নেই এবং এ-সংক্রান্ত কোনো আইনও তাদের নেই। প্রতিটি বিমা কোম্পানির সঙ্গে সমন্বয় করে তারা গ্রাহকদের এ বার্তা পাঠিয়ে থাকেন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..