স্পোর্টস

বিশ্বকাপ ভাবনায় মিরাজ

ক্রীড়া প্রতিবেদক: দরজায় কড়া নাড়ছে বিশ্বকাপ ক্রিকেট। আসছে ৩০ মে শুরু ওয়ানডে ক্রিকেটের বিশ্বসেরা লড়াই। যেখানে থাকছে বাংলাদেশও। ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে ভালো করতে মুখিয়ে আছেন টাইগাররা। এখনই বিশ্বকাপে চোখ ক্রিকেটারদের।
জাতীয় দলের তরুণ ক্রিকেটার মেহেদী হাসান মিরাজ জানাচ্ছিলেন, বিশ্বকাপ প্রস্তুতিতে পেসারদের কাজে সাহায্য করাই হবে স্পিনারদের মূল কাজ। গতকাল মিরপুরের একাডেমি মাঠে আবাহনীর হয়ে অনুশীলনের ফাঁকে সংবাদ মাধ্যমে তিনি বলেন, ‘দেখুন, আমার কাছে মনে হয় স্পিনারদের রানটা চেক দেওয়া খুব জরুরি হবে। কারণ ওইসব দেশে কিন্তু স্পিনাররা বেশি সাহায্য পাবে না। উইকেট না বের করতে পারলেও ইকোনমিকাল বোলিং করতে হবে।’
মিরাজ আরও জানান, ‘আমি মনে করি ওভারপ্রতি পাঁচ সাড়ে পাঁচ করে রান দিলে সেটা অনেক ভালো বোলিং ফিগার হবে। এর মধ্যে দু-একটা উইকেট নিতে পারলে তো অনেক ভালো। আসল কথা এটাই যে, পেসারদের সাহায্য করা রান কম দেওয়া স্পিনারদের মূল ভূমিকা থাকবে বিশ্বকাপে।’
বিশ্বকাপ দল এখনও ঘোষণা করেনি বাংলাদেশ। তার আগে অবশ্য আনুষ্ঠানিক প্রস্তুতিও শুরু হয়নি। মিরাজ জানাচ্ছিলেন, ‘সামনে আমাদের আয়ারল্যান্ড সিরিজ আছে। এরপর আমরা বিশ্বকাপ খেলতে যাব। আমার কাছে মনে হয় প্রিমিয়ার লিগ চলাকালে যে এক মাস সময় পাব এ সময়ের মধ্যেই নিজেদের গুছিয়ে নিতে হবে। কারণ আমাদের হাতে ওই রকম সময় নেই। ওই রকম সময় পাবও না, প্রিমিয়ার লিগের ফাঁকে যতটুকু প্রস্তুতি নেওয়া সম্ভব ততটুকুই নেব।’
দলের স্পিনারদের দায়িত্ব সম্পর্কে জানাচ্ছিলেন, ‘আমাদের স্পিনারদের যে দায়িত্ব সেটা হলো পেসারদের সহযোগিতা করা। কারণ উপমহাদেশে খেলা হলে স্পিনারদের ভূমিকাটা বেশি থাকত। কিন্তু ইংল্যান্ডে পেসারদের সাপোর্ট করতে হবে। এই কাজটা ঠিকঠাক করতে পারলে আমাদের টিম আরও ভালো করবে।’
নিউজিল্যান্ডে সবশেষ সফর থেকে ইংল্যান্ডের কন্ডিশন সম্পর্কে কিছুটা ধারণা মিলেছে বলে জানালেন মিরাজ, নিউজিল্যান্ডে যখন খেলেছি তখন দেখেছি। ইংল্যান্ড আর নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশন অনেকটাই একই। তাই আমাকে কোন জায়গায় উন্নতি করতে হবে সেটা নিউজিল্যান্ড থেকেই অনেক কিছু ধরতে পেরেছি।’

সর্বশেষ..