Print Date & Time : 29 October 2020 Thursday 7:10 am

বিশ্ব পুঁজিবাজারে তিন মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ চাঙা ভাব

প্রকাশ: June 2, 2020 সময়- 11:21 pm

শেয়ার বিজ ডেস্ক : বিশ্ব পুঁজিবাজার ধীরে ধীরে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। গতকাল মঙ্গলবার এশিয়া, ইউরোপসহ বিশ্বের বড় পুঁজিবাজারের সূচকগুলো গত তিন মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ পর্যায়ে উঠেছে। খবর: রয়টার্স।

গতকাল প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত এশিয়ার প্রধান সূচক জাপানের নিক্কেই সূচক আগের দিনের তুলনায় ১ দশমিক ১৯ শতাংশ বেড়েছে। হংকংয়ের হ্যাংসেং সূচক বেড়েছে ১ দশমিক ১১ শতাংশ। এছাড়া চীনের সাংহাই সূচক বেড়েছে দশমিক ২০ শতাংশ এবং ভারতের সেনসেক্স সূচক বেড়েছে ১ দশমিক ৫৭ শতাংশ। এ অঞ্চলের অন্য সূচকগুলোও গতকাল ছিল ঊর্ধ্বমুখী।

বিশ্লেষকেরা বলছেন, কয়েকটি কারণে পুঁজিবাজারে চাঙা ভাব দেখা দিয়েছে। প্রথমত, বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ চীনের সঙ্গে বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নতুন করে বাণিজ্যযুদ্ধ শুরু না করায় এবং করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও হংকং ইস্যুতে উত্তেজনা উসকে না দিয়ে তা এড়িয়ে চলায় পুঁজিবাজারে প্রভাব পড়েছে। দ্বিতীয়ত, চীনের অর্থনীতিতে ঘুরে দাঁড়ানোর লক্ষণ দেখা দেওয়ায় এবং এ অঞ্চলের বিভিন্ন দেশে অর্থনৈতিক কর্মকাø শুরু হওয়ায় পুঁজিবাজার নিয়েও খানিক আশাবাদ তৈরি হয়েছে। তৃতীয়ত, যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন শহরে দাঙ্গা প্রশমিত হয়ে আসার কারণেও পুঁজিবাজারে স্বস্তি ফিরেছে।

ইউরোপের পুঁজিবাজারের মধ্যে গতকাল লন্ডনের এফটিএসই ১০০ সূচক বেড়েছে প্রায় এক শতাংশ। জার্মানির ডিএএক্স সূচক বেড়েছে ৩ দশমিক ৪৬ শতাংশ। এছাড়া ফ্রান্সের সিএসসি ৪০ সূচক বেড়েছ ১ দশমিক ৮ শতাংশ এবং ফ্রান্সের এফটিএসই এমআইবি সূচক বেড়েছে দুই শতাংশের বেশি। অন্যদিকে ইতালির আইবিইএক্স ৩৫ সূচক বেড়েছে ২ দশমিক ২৮ শতাংশ।

মিঝুহো ব্যাংকের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র সতর্কভাবে চলার ফলে এর প্রভাব পড়েছে পুঁজিবাজারে। তবে চীন-মার্কিন উত্তেজনা আবারও শুরু হতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছে ব্যাংকটি।

চীনের বিজনেস ম্যাগাজিন কাইক্সিন এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, গত মাসে সে দেশের উৎপাদন খাতে বিগত চার মাসের মধ্যে সবচেয়ে বেশি পণ্য উৎপাদিত হয়েছে। তবে বৈশ্বিক অর্থনীতিতে চাহিদা দুর্বল হয়ে পড়ায় চীনের পণ্য রপ্তানি আদেশ কমেছে বলেও জানায় ম্যাগাজিনটি। এদিকে আজ এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সদ্য সমাপ্ত মে মাসে দক্ষিণ  কোরিয়ার রপ্তানি আয় আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ২৩ দশমিক ৭ শতাংশ কমেছে। বিশ্বে এখন গত শতকের ত্রিশের দশকের পর সবচেয়ে ভয়াবহ অর্থনৈতিক মন্দা চলছে। চীন-মার্কিন উত্তেজনায় বৈশ্বিক অর্থনীতির ঘুরে দাঁড়ানোর ব্যাপারে বিনিয়োগকারীরা আশাবাদী হতে পারছেন না। যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিলসহ কিছু দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এখনও বাড়তে থাকলেও ইউরোপের অনেক দেশে এরই মধ্যে অর্থনৈতিক কর্মকাø বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে পুঁজিবাজারগুলোয় আশার সঞ্চার হচ্ছে এবং সূচক বাড়ছে।

গত সোমবার লেনদেন শেষে যুক্তরাষ্ট্রের পুঁজিবাজারের প্রধান তিনটি সূচকই ছিল ঊর্ধ্বমুখী। এর মধ্যে ডাও জোনস সূচক বেড়েছে দশমিক ৩৬ শতাংশ, নাসডাক সূচক বেড়েছে দশমিক ৬৬ শতাংশ এবং এসঅ্যান্ডপি ৫০০ সূচক বেড়েছে দশমিক ৩৮ শতাংশ।