Print Date & Time : 3 July 2022 Sunday 5:04 pm

বেতন কাঠামো বাস্তবায়নে আরও সময় চায় ব্যাংকগুলো

নিজস্ব প্রতিবেদক: বেসরকারি খাতের ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সর্বনিন্ম বেতন-ভাতা বাস্তবায়নের সময়সীমা বাড়াতে বাংলাদেশ ব্যাংককে অনুরোধ জানিয়েছে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স (বিএবি)। গতকাল কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবিরের সঙ্গে বৈঠক শেষে বিএবি ও এক্সিম ব্যাংকের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম মজুমদার সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। তিনি আশা করেন, তাদের এ দাবি মেনে সময় বাড়ানো হবে।

বৈঠকে অংশ নেন ব্যাংক নির্বাহীদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স, বাংলাদেশের (এবিবি) নেতারাও।

গত ২০ জানুয়ারি বেসরকারি ব্যাংকের নতুন কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সর্বনি¤œ বেতন নির্ধারণ করে নির্দেশনা জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক। নির্দেশনায় বলা হয়, কর্মকর্তাদের শিক্ষানবিসকালে সর্বনিন্ম বেতন-ভাতা হবে ২৮ হাজার টাকা। আর শিক্ষানবিসকাল শেষ হলে বেতন-ভাতা হবে ৩৯ হাজার টাকা। আর ব্যাংকের অফিস সহায়কদের সর্বনিন্ম বেতন হবে ২৪ হাজার টাকা। আগামী মার্চ থেকে এ নির্দেশনা কার্যকর করতে বলেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

বৈঠকের পর বিএবির চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম মজুমদার সাংবাদিকদের বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের এ নির্দেশনা ১ মার্চ থেকে বাস্তবায়ন করা কঠিন হবে। আমরা এ কথা কেন্দ্রীয় ব্যাংককে জানিয়েছে। বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সঙ্গে আমাদের আরও আলোচনা করতে হবে। এরপরই হয়ত বিএবি ওই নোটিস পুনর্বিবেচনার অনুরোধ জানাবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ওই নির্দেশনায় অস্পষ্টতা থাকার কথাও উল্লেখ করেন নজরুল ইসলাম মজুমদার। তবে অস্পষ্টতার ব্যাপারে তিনি বিস্তারিত কিছু বলেননি। বাংলাদেশ ব্যাংক বিষয়টিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দেখবে বলে বিএবিকে আশ্বস্ত করেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, সর্বনিন্ম বেতন বাস্তবায়নের নির্দেশনার সময়সীমা বাড়াতে বিএবি অনুরোধ জানিয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংক বিষয়টি ভেবে দেখবে বলে জানিয়েছে।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, বেতন কাঠামো বাস্তবায়নে ব্যাংকগুলোর আবেদনের প্রেক্ষিতে সময় বাড়াবে বাংলাদেশ ব্যাংক। সেক্ষেত্রে ব্যাংকের বেতন কাঠামো, বার্ষিক মুনাফা, খেলাপি ঋণের হার, জনবল ও প্রশাসনিক ব্যবস্থাপনাকে মূল্যায়ন করা হবে। এ বিষয়ে সামষ্টিক ও ব্যাংক ভেদে সময় দেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে বাংলাদেশ ব্যাংক। প্রয়োজনে ব্যাংকের কাছ থেকে মতামত নিতে পারে নিয়ন্ত্রণ সংস্থাটি।