সারা বাংলা

বেনাপোলে ভারতীয় ওষুধ ও মোবাইল ফোন জব্দ

প্রতিনিধি, বেনাপোল: বেনাপোল চেকপোস্টে কাস্টমস ও কাস্টমস শুল্ক গোয়েন্দার যৌথ অভিযানে ভারত থেকে আসা বাংলাদেশি পাসপোর্টধারী যাত্রীর কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় ওষুধ ও মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে। গতকাল দুপুরে জব্দকৃত এসব পণ্যের বাজার মূল্য প্রায় আট লাখ টাকা।

পাসপোর্টধারী যাত্রী রত্না ঢাকার গুলশান বাড্ডা এলাকার মো. মোজাম্মেলের স্ত্রী ও আবিদ হাসান একই এলাকার আবদুর রহমানের ছেলে।

বেনাপোল কাস্টমস সূত্র জানায়, স্ক্যানিং মেশিনে বড় বড় তিনটি ল্যাগেজে ওষুধের এ চালান ধরা পড়ে। এরপর ল্যাগেজ খুলে দেখা যায় তার মধ্যে ভারতীয় উন্নতমানের পেনিটন সোডিয়াম ইনজেকশন, ইউএসপি ও থ্রমবোফোপ জেল রয়েছে। এ সময় ওই পাসপোর্টধারী যাত্রী তার ল্যাগেজ ফেলে পালিয়ে যায়।

অপরদিকে ভারত থেকে আসা বাংলাদেশি পাসপোর্টধারী যাত্রী রত্না খাতুন  ও আবিদ হাসান  কাস্টমসের স্ক্যানিং থেকে বের হলে সন্দেহবশত শুল্ক গোয়েন্দারা তাদের বেনাপোল স্থলবন্দর টার্মিনালের ভেতর থেকে আটক করে। এ সময় নারী কাস্টমস কর্মকর্তা দিয়ে তল্লাশি করা হলে রত্নার কাছ থেকে অভিনব কায়দায় লুকানো ১৬টি রেডমি-৮ প্রো-মোবাইল ফোন পাওয়া যায়।

চেকপোস্ট কাস্টমস সুপার এমএ হান্নান জানান, কাস্টমস ও শুল্ক গোয়েন্দারা যৌথভাবে মোবাইল ফোন ও ওষুধ জব্দ করে। ওষুধ ও মোবাইল ফোনের মোট মূল্য সাত লাখ ৮৫ হাজার টাকা। তবে ওষুধের মালিক না পাওয়ায় মালিকবিহীন জব্দ করা হয়েছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..