দিনের খবর শেষ পাতা

বেসরকারি খাতের ত্রুটি-বিচ্যুতি তুলে ধরুন

বিজনেস ইনসাইডারের উদ্বোধনীতে তথ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: অর্থনীতি ও ব্যবসা-বাণিজ্যের সব খবর সঠিকভাবে তুলে ধরার আহ্বান জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেছেন, বেসরকারি খাতের ত্রুটি-বিচ্যুতি তুলে ধরুন। এটা সরকারের জন্য এ খাতের প্রকৃত অবস্থা বুঝতে সহায়ক হবে।

গতকাল রাজধানীর কারওয়ান বাজারে নতুন ইংরেজি দৈনিক ‘বিজনেস ইনসাইডার বাংলাদেশ’-এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।  

তথ্যমন্ত্রী বলেন, সফলতার খবর প্রকাশের পাশাপাশি আপনাদের বেসরকারি খাতে নানা ত্রুটি-বিচ্যুতিও তুলে ধরা উচিত। যাতে আমাদের জন্য এসব সমস্যা সমাধানে সহায়ক হয়। তিনি বলেন, ব্যবসা-বাণিজ্য ও অর্থনীতির ভেতরের খবর আমরা জানতে চাই।

বিজনেস ইনসাইডার বাংলাদেশের নামের প্রশংসা করে তিনি বলেন, আপনাদের নামটা খুব ভালো। আশা করব আপনারা ব্যবসা-বাণিজ্যের ভেতরের খবর নিয়ে আসবেন। সেই সঙ্গে ব্যাংকিংসহ অন্যান্য জায়গায় যদি কোনো অনিয়ম থাকে সেটিও তুলে ধরতে হবে। সেটি তুলে ধরলে অনিয়ম বন্ধ হবে।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশ প্রথম এবং বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান ২৫তম। তিনি বলেন, বিশ্বের অনেক দেশ এখনও করোনাভাইরাসের টিকা সংগ্রহ করতে পারেনি। আমাদের দেশে এ নিয়ে অনেক সমালোচনা হয়েছে। কিন্তু সব সমালোচনা উপেক্ষা করে দেশের সবাই উৎসাহ নিয়ে টিকা নিচ্ছেন। 

বিজনেস ইনসাইডার বাংলাদেশের সাফল্য কামনা করে তথ্যমন্ত্রী ব্যবসা-বাণিজ্যের খবর প্রকাশের পাশাপাশি মানবিক আবেদন সমৃদ্ধ রিপোর্ট প্রকাশের জন্যও সাংবাদিকদের প্রতি আহ্বান জানান।

ড. হাছান মাহমুদ দেশের সার্বিক স্বার্থে অল্প সময়ে ব্যবসা করে লাভবান হওয়ার মানসিকতা পরিহার করতে ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, আমাদের দেশের ব্যবসায়ীরা রাতারাতি ধনী হতে চান। তাদের এ ধরনের মানসিকতা পরিহার করা উচিত। 

বিজনেস ইনসাইডার মিডিয়া লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সাবেক চেয়ারম্যান মো. গোলাম হোসেন বলেন, প্রথাগত সাংবাদিকতার পরিবর্তে এ দৈনিকের প্রধান লক্ষ্য হলো দেশের ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প এবং কৃষি খাতকে তুলে ধরা। গোলাম হোসেন বলেন, সরকার আমাদের সবকিছু করে দেবে এমন মানসিকতা থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে। সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে আমরা অংশীদার হতে চাই। 

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাকাস্থ ফিলিপাইন দূতাবাসের অ্যাটাচে লরেন এস আর্চ, পাকিস্তান হাইকমিশনের কাউন্সিলর মুহাম্মদ আওরঙ্গজেব হারালসহ বিভিন্ন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিরা।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন
ট্যাগ ➧

সর্বশেষ..