প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ব্যাংককে আপটার সভায় বাণিজ্যমন্ত্রী: বাংলাদেশের রফতানি বাণিজ্য বাড়বে

 

শেয়ার বিজ ডেস্ক: বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, বাণিজ্য সুবিধা বৃদ্ধির ফলে আপটাভুক্ত দেশগুলোর বাণিজ্য অনেক বাড়বে। আপটার চতুর্থ রাউন্ড নেগোসিয়েশনের আওতায় শুল্ক সুবিধাপ্রাপ্ত পণ্যসংখ্যা চার হাজার ৬৪৮ থেকে ১০ হাজার ৬৭৭টিতে উন্নীত হবে। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, এতে করে আপটাভুক্ত দেশগুলোতে বাণিজ্য সহযোগিতা বৃদ্ধি, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও এসডিজি অর্জনে সহায়ক হবে। ফলে বাংলাদেশের রফতানি বাণিজ্য বহুগুণ বৃদ্ধি পাবে। শুল্ক ও বাজার সুবিধা বাংলাদেশের রফতানি বাজার সম্প্রসারণ ও রফতানি আয় বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে। বাণিজ্যমন্ত্রী গতকাল শুক্রবার থাইল্যান্ডের ব্যাংককে অনুষ্ঠিত চতুর্থ মিনিস্টেরিয়াল কাউন্সিল সভায় সভাপতিত্ব করে এসব কথা বলেন।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, আপটার ভবিষ্যৎ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল করতে হবে। ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা গ্রহণের ক্ষেত্রে পণ্য বাণিজ্যে শুল্ক সুবিধা দেওয়ার পাশাপাশি সেবা খাত, বিনিয়োগ ও ট্রেড ফেসিলিটেশন বিষয়ে ২০০৯ সালে স্বাক্ষরিত ফ্রেমওয়ার্ক চুক্তি দ্রুত কার্যকর করা প্রয়োজন। এক্ষেত্রে এলডিসিভুক্ত দেশগুলোকে বিশেষ সুবিধা দিলে তা বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ‘রূপকল্প-২০২১’ অর্জনে সহায়ক ভূমিকা রাখবে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী চিন্তা ও যোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক ও সামাজিক ক্ষেত্রে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের জিডিপি অর্জন ৭ দশমিক ১১ শতাংশ, মানুষের মাথাপিছু আয় এক হাজার ৪৬৬ মার্কিন ডলার, বাংলাদেশের অর্থনীতি এখন শক্ত ভিত্তির ওপর দাঁড়িয়ে আছে।