প্রচ্ছদ প্রথম পাতা

ব্যাংক খাতের শেয়ার দরে বড় পতন

ডিএসইর সাপ্তাহিক বাজারচিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঈদ-পরবর্তী প্রথম সপ্তাহ পার করল দেশের পুঁজিবাজার। বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণ কমায় লেনদেনও আগের সপ্তাহের চেয়ে কম হয়েছে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই)। এ সময়ে অধিকাংশ সিকিউরিটিজের শেয়ারদর বৃদ্ধি পেয়েছে। কিন্তু দর বৃদ্ধির দৌড়ে এগিয়ে গেছে আর্থিক খাতবহির্ভূত প্রতিষ্ঠানগুলো। শুধু সাধারণ বিমা ছাড়া সবচেয়ে বেশি দর হারিয়েছে আর্থিক খাতের কোম্পানির শেয়ার। ডিএসইর সাপ্তাহিক তথ্য বিশ্লেষণ করে পাওয়া গেছে এমন তথ্য।
জানা গেছে, গত ১৮ থেকে ২২ আগস্ট শেষ হওয়া সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে পাঁচ দিন। এ সময়ে বিনিয়োগকারীদের অংগ্রহণ আগের চেয়ে কমে যাওয়ায় লেনদেন কমেছে দুই দশমিক ৭৯ শতাংশ।
ডিএসইতে মোট ৩৫৭টি সিকিউরিটিজ লেনদেনে অংশগ্রহণ করে। এর মধ্যে শেয়ারদর বৃদ্ধি পায় ১৯৫টির বা ৫৪ দশমিক ৬২ শতাংশ, শেয়ারদর কমে ১৪১টির বা ৩৯ দশমিক ৪৯ শতাংশ। দর অপরিবর্তিত ছিল ১৯টির এবং লেনদেন হয়নি দুটি সিকিউরিটিজের। এ সময়ে ডিএসইর দুটি সূচক ইতিবাচক ধারায় লেনদেন শেষ করলেও শরিয়াহ্ সূচক নেতিবাচক ধারায় লেনদেন শেষ করে।
সাপ্তাহিক তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, আর্থিক খাতের প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে সাধারণ বিমা ছাড়া শেয়ারদর কমে যায় সবগুলোর। এর মধ্যে ব্যাংক খাতের শেয়ারদর হারিয়েছে সর্বোচ্চ দুই দশমিক শূন্য তিন শতাংশ। একই সঙ্গে কমেছে জীবন বিমা খাত এক দশমিক ৪৯ শতাংশ, মিউচুয়াল ফান্ড এক দশমিক ৭৫ শতাংশ ও ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান শূন্য দশমিক ৭০ শতাংশ।
অপরদিকে আর্থিক খাতবহির্ভূত প্রতিষ্ঠানগুলোর অধিকাংশের শেয়ারদর বৃদ্ধি পায়। এর মধ্যে খাদ্য ও আনুষঙ্গিক খাতে এক দশমিক ৩১ শতাংশ, বস্ত্র খাতে দুই দশমিক ৫৮, প্রকৌশল খাতে দুই দশমিক ১৭, ওষুধ খাতে এক দশমিক ৪৫ ও টেলিকম খাতে শূন্য দশমিক ২৭ শতাংশ শেয়ারদর বৃদ্ধি পায়।
ডিএসইর মোট লেনদেনে সর্বোচ্চ ১৮ শতাংশ অবদান রাখে ওষুধ খাত। এরপরই ১৫ শতাংশ অবদান রাখে জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতের শেয়ার। প্রকৌশল খাত অবদান রাখে ১৩ শতাংশ। এছাড়া লেনদেনে বস্ত্র খাত ১২ শতাংশ, জীবন বিমা খাতের দুই শতাংশ, আইটি খাতের দুই শতাংশ, সিমেন্ট খাতের চার শতাংশ, টেলিকম খাতের দুই শতাংশ।
সাপ্তাহিক শেয়ারদর বৃদ্ধিতে শীর্ষ ১০টিতে উঠে আসে ফ্যামিলি টেক্সটাইল। এ সপ্তাহে
কোম্পানির সর্বোচ্চ দর বেড়েছে ৩০ শতাংশ। এরপরই রয়েছে জেনারেশন নেক্সট, এ্যাপোলো ইস্পাত, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক, এসএস স্টিল, ওরিয়ন ইনফিউশনস, এসইএমএল আইবিবিএল শরিয়াহ্ ফান্ড, গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স, সায়হাম টেক্সটাইল ও আরএন স্পিনিং মিলস।
অপরদিকে সাপ্তাহিক শেয়ারে দরপতন তালিকায় শীর্ষস্থান পায় সানলাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি। সপ্তাহে কোম্পানিটির সর্বোচ্চ দর কমেছে আট দশমিক ৮৯ শতাংশ। এরপরই রয়েছে এসইএমএল এফবিএলএসএল গ্রোথ ফান্ড, ভিএফএস থ্রেড, ফার্স্ট ফাইন্যান্স, এপেক্স ট্যানারি, ভ্যানগার্ড এএমএল বিডি ফাইন্যান্স মিউচুয়াল ফান্ড ওয়ান, আইপিডিসি, বিচ হ্যাচারি, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল্ ও আইসিবি এএমসিএল সোনালী ব্যাংক লিমিটেড ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ড।

 

সর্বশেষ..