প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছাত্রদল নেতার মৃত্যু, ১৮ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন

প্রতিনিধি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে পুলিশের গুলিতে ছাত্রদল নেতা নয়ন মিয়ার (২২) মৃত্যুর অভিযোগে এসপি মোহাম্মদ আনিসুর রহমানসহ ১৮ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে আদালতে মামলার আবেদন করা হয়েছে। গতকাল বেলা ১১টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে নিহত নয়নের বাবা রহমত উল্লাহ বাদী হয়ে মামলার আবেদন করেন। বিচারক এ বিষয়ে পরে আদেশ দেবেন বলে জানিয়েছেন।

মামলার এজহারে আসামিদের মধ্যে আটজনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। তারা হলেনÑব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোজাম্মেল হোসেন রেজা, বাঞ্ছারামপুর থানার ওসি নূরে আলম, পরিদর্শক (তদন্ত) তরুণ কান্তি দে, উপ-পরিদর্শক (এসআই) আফজাল হোসেন খান ও বিকিরণ চাকমা এবং কনস্টেবল বিশ্বজিৎ চন্দ্র দাস ও শফিকুল ইসলাম। পুলিশের বাকি ১০ সদস্য অজ্ঞাত।এর আগে গত ১৯ নভেম্বর বিকালে বাঞ্ছারামপুর উপজেলা সদরের মোল্লাবাড়ী এলাকায় বিএনপির মিছিলে বাধা দেয় পুলিশ। এ নিয়ে বাগবিতণ্ডার একপর্যায়ে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের পাল্টাপাল্টি ধাওয়া হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গুলি চালায় পুলিশ। এতে গুলিবিদ্ধ হন বাঞ্ছারামপুর উপজেলার সোনারামপুর ইউনিয়ন ছাত্রদলের সহসভাপতি নয়ন মিয়া। পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর রাত সাড়ে ৭টায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় আহত হন আরও অন্তত ১০ জন।

বিএনপি-সমর্থিত আইনজীবী আরিফুল হক মাসুদ জানান, নয়নের বাবা বাদী হয়ে মামলার আবেদন করেছেন। বিচারক শুনানি শেষে পরে আদেশ দেবেন বলে জানিয়েছেন।