প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিয়ের গেইটের ডিজাইন নিয়ে দুই গ্রামের সংঘর্ষ : আহত ১৫

প্রতিনিধি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া : বিয়ে বাড়ির গেইটের ডিজাইনকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের দৌলতপুর ও সীতারামপুর গ্রামবাসীর মধ্যে মঙ্গলবার রাত থেকে দফায় দফায় চলে এই সংঘর্ষ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অর্ধশতাধিক রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়েছে পুলিশ। সাতজনকে আটক করাসহ মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ।

স্থানীয় এলাকাবাসীর বরাত দিয়ে কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন জানান, সোমবার ইউনিয়নের সীতারামপুর গ্রামের রিয়াজুদ্দিন গোষ্ঠির রাজুর বাড়িতে এক বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হচ্ছিলো। সেখানে ডেকোরেশনের কাজ করেন দৌলতপুর গ্রামের হাসান আলী বাড়ির এক ছেলে। ডেকোরেশনের গেইটের ডিজাইনের কাজ পছন্দ হয়নি বিয়ে বাড়ির লোকজনের। এই নিয়ে দৌলতপুরের ডেকোরেশনের ছেলেটির সাথে তাদের বাকবিতণ্ডা ও ধস্তাধস্তি হয়। বিষয়টি মিমাংসা করতে মঙ্গলবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের এক জায়গায় উভয় পক্ষকে নিয়ে শালিস সভায় বসা হয়। এরই মাঝে সন্ধ্যার পর খবর আসে একদিন আগের ঘটে যাওয়া বিয়ে বাড়ির গেইটের ঘটনাকে কেন্দ্র করে দৌলতপুর ও সীতারামপুর গ্রামের দুই যুবক তর্কবিতর্ক থেকে মারামারিতে জড়িয়ে পড়ে। এনিয়ে দুই গ্রামবাসী মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। এতে অন্তত ১৫ জন আহতের পাশাপাশি অনেক দোকানপাট ভাঙচুর-লুটপাট করা হয়। ঘটনার খবর পেয়ে নবীনগর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ব্যাপক লাঠিচার্জ করাসহ বিপুল পরিমাণ রাবার বুলেট ছুড়ে প্রায় দুই ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। উভয় পক্ষে উত্তেজনা বিরাজমান থাকায় এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয় এবং ঘটনাস্থল থেকে আটক করা হয় সাতজনকে। আহতরা বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। বর্তমানেও এলাকায় থমথমে ভাব বিরাজমান।

নবীনগর থানার পরিদর্শক (ওসি) আমিনুর রশিদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ‘পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অর্ধশতাধিত রাউণ্ড রাবার বুলেট ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশক অর্ধশতাধিক রাউণ্ড রাবার বুলেট ছুড়তে হয়। ঘটনায় জড়িতের দায়ে সাতজনকে আটক করাসহ ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।