বিশ্ব বাণিজ্য

ভক্সওয়াগনকে টপকে দ্বিতীয় মূল্যবান গাড়ি নির্মাতা টেসলা

শেয়ার বিজ ডেস্ক: জার্মানির গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ভক্সওয়াগনকে পেছনে ফেলে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম মূল্যবান কোম্পানিতে পরিণত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের টেসলা। প্রতিষ্ঠানটির এখন মোট বাজারমূল্য ১০ হাজার কোটি ডলার বা সাত হাজার ৬১০ কোটি পাউন্ডে দাঁড়িয়েছে। তাদের সাম্প্রতিক সময়ে নেওয়া কিছু পদক্ষেপ এতে বড় ভূমিকা পালন করেছে বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন। তবে সার্বিক বিবেচনায় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রতিষ্ঠানগুলোর তুলনায় এখনও বেশ পিছিয়ে রয়েছে টেসলা। খবর: সিএনএন, বিবিসি।

গত বুধবারের লেনদেনে টেসলার শেয়ারমূল্য অন্তত পাঁচ শতাংশ বৃদ্ধি পায়, যা প্রতিষ্ঠানটির মূল্যমান ১০ হাজার ডলার অতিক্রম করতে সহায়তা করে। তবে বিশ্বের সবচেয়ে মূল্যবান গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান জাপানের টয়োটা থেকে এখনও অনেক পিছিয়ে টেসলা। টয়োটার বর্তমান বাজারমূল্য প্রায় ২৩ হাজার কোটি ডলার। সে হিসেবে টয়োটাকে ধরতে বেশ কিছুদিন সময়ে লেগে যেতে পারে টেসলার।

প্রতিষ্ঠানটির প্রধান এলন মাস্ক একসময় আশা প্রকাশ করে বলেছিলেন, টেসলা এক সময় লাখ কোটি ডলারের কোম্পানিতে পরিণত হবে। এতে বিশ্বের সবচেয়ে মূল্যবান কোম্পানিতে পরিণত হবে প্রতিষ্ঠানটি। তবে সেটি কবে নাগাদ হবে সে বিষয়ে কোনো নিশ্চয়তা মেলেনি। গত বছরের অক্টোবরের পর থেকে টেসলার শেয়ারমূল্য বৃদ্ধি পেয়ে অন্তত দ্বিগুণ হয়ে গেছে। সে সময় বিরল প্রান্তিকভিত্তিক লভ্যাংশ ঘোষণা করে কোম্পানিটি।

বিশ্লেষকরা মনে করছেন, টেসলার সাম্প্রতিক কিছু পদক্ষেপ এর বাজারমূল্য বৃদ্ধিতে সহায়তা করেছে। বিশেষ করে চীনের সাংহাইয়ে নতুন কারখানা স্থাপন করা এবং গাড়ি সরবরাহের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ এক্ষেত্রে বড় ভূমিকা রেখেছে। চলতি মাসেই টেসলা জানায়, গত বছর তিন লাখ ৬৭ হাজার ৫০০ গাড়ি সরবরাহ করেছে তারা। ২০১৮ সালের তুলনায় যা দ্বিগুণ বা ৫০ শতাংশ বেশি।

বিনিয়োগকারীরা আশা করছেন, নতুন কারখানা চীনের বাজারে টেসলার অবস্থানকে আরও সুসংহত করবে। যদিও টেসলার মূল্যমান বাড়লেও বিক্রির দিক থেকে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রতিষ্ঠানগুলোর তুলনায় এখনও বেশ পিছিয়ে রয়েছে। গত বছর অন্তত এক কোটি ১০ লাখ গাড়ি বিক্রি করে ভক্সওয়াগন। এছাড়া ২০১৯ সালের প্রথম ১১ মাসে ৯০ লাখ গাড়ি বিক্রি করে টয়োটা।

বার্ষিক মুনাফার ক্ষেত্রে অনেক পিছিয়ে রয়েছে টেসলা। এছাড়া নানা বিষয়ে তদন্তের সম্মুক্ষীণ হচ্ছে কোম্পানিটি। এর মধ্যে ব্যাটারিতে আগুন ধরার অভিযোগ এবং গতি বৃদ্ধি নিয়ে বেশ ভুগতে হচ্ছে টেসলাকে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..