প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ভারতকে বড় ব্যবধানে হারালো অস্ট্রেলিয়া

ক্রীড়া ডেস্ক: উমেশ যাদবের ব্যাট ছুঁয়ে ও’কিফের করা বল চলে গেলো প্রথম সিøপে। সহজ ক্যাচ তালুবন্দি করেই স্টিভেন স্মিথের বাঁধভাঙা আনন্দ। সেই সঙ্গে একসঙ্গে জড়ো হয়ে মাঠের মধ্যেই নাচলো পুরো অস্ট্রেলিয়া দল। এটাই তো স্বাভাবিক।  কেননা পুনে টেস্ট তিন দিন শেষ না  হতেই ও’কিফের ঘূর্ণিতে ভারতকে ৩৩৩ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে সফরকারীরা।  যে কারণে চার ম্যাচ সিরিজে ১-০-তে এগিয়ে গেল অজিরা।

এই জয়ে দুই ইনিংস মিলিয়ে ৭০ রানে ১২ উইকেট নিয়েছেন ও’কিফে। প্রথম ইনিংসে ৩৫ রানে ৬ উইকেট নিয়ে ভারতের বিখ্যাত ব্যাটিং লাইনআপও ধসিয়ে দিয়েছিলেন অজি এ স্পিনার। কাকতালীয়ভাবে দ্বিতীয় ইনিংসেও ঠিক ৩৫ রানেই আরও ৬ উইকেট। ৭০ রানে ১২ উইকেট ভারতের মাটিতে যে কোনো বিদেশি স্পিনারের রেকর্ড। এর আগে ২০০৮ সালে নাগপুরে ৩৫৮ রান দিয়ে ১২ উইকেট নিয়েছিলেন ও’কিফের স্বদেশি সাবেক অফস্পিনার জেসন ক্রেজা।

দুই ইনিংসে ও’কিফের স্পিন ঘূর্ণিতে ভারতকে বিধ্বস্ত করলো অস্ট্রেলিয়া। প্রথম ইনিংসে ১০৫ রানের পর দ্বিতীয় ইনিংসে স্বাগতিকরা অলআউট ১০৭ রানে। সিরিজের প্রথম টেস্টটা যে কারণে বিশাল ব্যবধানে হেরে গেলো ভারত।এই হারে বিরাট কোহলিদের টানা ১৯ টেস্টের জয়ের ছেদ পড়লো।

ম্যাচ জিততে ৪৪১ রানের পাহাড়সম বোঝার পেছনে ছুটতে হতো ভারতকে। গড়তে হতো নতুন বিশ্বরেকর্ড। ভারতের মাটিতে তো নয়ই, টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসেই চতুর্থ ইনিংসে সর্বোচ্চ রান তাড়ার রেকর্ডটি ৪১৮ রানের। চারশর ওপরে আছে মাত্র চারটি রান তাড়া করার ইতিহাস। সেখানে পুনের খানাখন্দ পিচ। ভারতের ইনিংসটাও তাই অসহায় আত্মসমর্পণের বিষাদমাখা গল্পই হয়ে থাকলো।

এর আগে গতকাল সকালে স্টিভেন স্মিথের ১০৯ রানে ভর করে ২৮৫ রানে অলআউট হয় অস্ট্রেলিয়া। ভারতের বিপক্ষে এ সেঞ্চুরি নিয়ে টানা পাঁচটি সেঞ্চুরি হাঁকালেন অজি

অধিনায়ক। আর তাতেই প্রথম ইনিংসে পাওয়া ১৫৫ রানের লিড মিলিয়ে ভারতের সামনে জয়ের লক্ষ্য দাঁড়ায় ৪৪১ রান।

ভারতের দ্বিতীয় ইনিংসের শুরু থেকেই লাগাম টেনে ধরেন অজি দুই স্পিনার ও’কিফে  ও নাথান লায়ন। বিশেষ করে ও’কিফের বলে দিশেহারা হয়ে পড়েন স্বাগতিক ব্যাটসম্যানরা। স্বাগতিক ইনিংস যার দিকে তাকিয়ে ছিল, সেই বিরাট কোহলি গতকাল ও’কিফের বল বুঝতে না পেরে ছেড়ে দেন। কিন্তু বল না ঘুরে সোজা স্ট্যাম্পে আঘাত হানে। বলা যায়, ওখানেই বড় পরাজয়ের শঙ্কাটা শুরু হয় স্বাগতিকদের। তারপরও কোহলিদের একটাই সান্ত¡না  প্রথম ইনিংসের চেয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ২ রান বেশি করতে পারাটা।

বেঙ্গালুরুতে ৪ মার্চ শুরু সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

অস্ট্রেলিয়া ১ম ইনিংস: ২৬০/১০

ভারত ১ম ইনিংস: ১০৫/১০

অস্ট্রেলিয়া ২য় ইনিংস: ৮৭ ওভারে ২৮৫ (আগের দিন ১৪৩/৪) (স্মিথ ১০৯, মার্শ ৩১, ওয়েড ২০, স্টার্ক ৩০, ও’কিফে ৬, লায়ন ১৩, হেইজেলউড ২*; অশ্বিন ৪/১১৯, জাদেজা ৩/৬৫, উমেশ ২/৩৯, জয়ন্ত ১/৪৩, ইশান্ত ০/৬)।

ভারত ২য় ইনিংস: (লক্ষ্য ৪৪১) ৩৩.৫ ওভারে ১০৭ (বিজয় ২, রাহুল ১০, পুজারা ৩১, কোহলি ১৩, রাহানে ১৮, অশ্বিন ৮, ঋদ্ধিমান ৫, জাদেজা ৩, জয়ন্ত ৫, ইশান্ত ০, উমেশ ০*; লায়ন ৪/৫৩, ও’কিফে ৬/৩৫)।

ফল: অস্ট্রেলিয়া ৩৩৩ রানে জয়ী

সিরিজ: চার ম্যাচ সিরিজে অস্ট্রেলিয়া ১-০তে এগিয়ে

ম্যাচসেরা: স্টিভেন ও’কিফে