বিশ্ব সংবাদ

ভারতজুড়ে জনতা কারফিউ পালিত

যাত্রীবাহী ট্রেন ও মেট্রো বন্ধ

শেয়ার বিজ ডেস্ক : ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আহ্বানে সাড়া দিয়ে দেশটিতে ১৪ ঘণ্টার ‘জনতা কারফিউ’ পালন করা হয়েছে। গতকাল রোববার সকাল ৭টা থেকে শুরু হয়ে এটি শেষ হয় রাত ৯টায়। ভারতজুড়ে স্বেচ্ছায় ঘরবন্দি থাকে মানুষ। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। এদিকে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত ভারতজুড়ে সব যাত্রীবাহী ট্রেন ও মেট্রো পরিষেবা বাতিল করা হয়েছে। খবর: এনডিটিভি।

গত বৃহস্পতিবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে বলেন, ‘জনতার এ কারফিউ চলার সময় কেউ ঘরের বাইরে যাবেন না বা প্রতিবেশীর বাড়িতে যাবেন না। শুধু জরুরি পরিষেবা কাজে নিয়োজিত ব্যক্তিরাই বের হবেন।’

গতকাল জনতা কারফিউ শুরুর কিছু আগে মোদি টুইট করেছেন, ‘আর কিছুক্ষণ পরই জনতা কারফিউ শুরু হবে। আসুন, সবাই এতে শরিক হই। কোভিড-১৯-এর ভয়াবহ সংক্রমণ ঠেকাতে আমাদের সবার শক্তি একত্র করি। আজ যে পদক্ষেপ আমরা নিচ্ছি, তা আমাদের ভবিষ্যতে সহায়তা করবে। ঘরের ভেতর থাকুন, সুস্থ থাকুন।’

গত দুদিনে ভারতে নতুন করে ১০০ জনের বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। গতকাল পর্যন্ত আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা ৩৩২-এ গিয়ে ঠেকেছে। ভারতে মারা গেছেন চারজন। বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া এ ভাইরাসে এরই মধ্যে তিন লাখের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। মারা গেছেন ১৩ হাজারের বেশি।

গতকাল ভারতের বাস, ট্রেনসহ সব ধরনের পরিবহন বন্ধ ছিল। যারা ভোরের দিকে কোনো রেলস্টেশনে গেছেন, তাদের স্টেশনের ওয়েটিংরুমে কাটাতে হয়েছে। ভারতীয়  রেলওয়ে সেখানে থাকার বন্দোবস্ত করেছে। এদিন বিকাল ৫টায় কারফিউ পালনরত নাগরিকদের নিজেদের দরজা-জানালায় অথবা বারান্দায় দাঁড়িয়ে অন্যের সেবা যারা করছেন, তাদের জন্য পাঁচ মিনিট হাততালি, থালা, ঘণ্টা বাজিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করারও আহ্বান জানিয়েছিলেন মোদি। কারফিউ চলাকালীন রুটিন চেকআপের জন্য হাসপাতালে যেতেও মানা করেছেন তিনি।  যেসব সার্জারি একান্ত জরুরি নয়, সেগুলোর তারিখ পিছিয়ে দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী।

এদিকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত দেশজুড়ে সব যাত্রীবাহী ট্রেন পুরোপুরি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত। দেশটির রেলমন্ত্রীর তরফে জানানো হয়েছে, ৩১ মার্চ পর্যন্ত মেইল, এক্সপ্রেস, প্যাসেঞ্জার, লোকাল-সহ সব ধরনের ট্রেন পরিষেবা বন্ধ থাকবে। গতকাল মধ্যরাতের পর থেকে বন্ধ হয়ে গেছে কলকাতার মেট্রো পরিষেবাও।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..