বিশ্ব বাণিজ্য

ভারতে আরও ১০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে আমাজন

শেয়ার বিজ ডেস্ক : ই-কমার্স জায়ান্ট আমাজনপ্রধান জেফ বেজোস ভারতে বড় বিনিয়োগের ঘোষণা দিয়েছেন। বিক্ষোভের সম্ভাবনার মধ্যেই তিন দিনের সফরে গত মঙ্গলবার রাতে ভারত পৌঁছান তিনি। গতকাল নয়াদিল্লিতে কোম্পানির এক অনুষ্ঠানে দেশটিতে ১০০ কোটি ডলার বিনিয়োগের ঘোষণা দেন তিনি। খবর: বিবিসি।

আমাজন, ফ্লিপকার্টের মতো ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে প্রতিযোগিতা কমিশন তদন্তের নির্দেশ দেওয়ার পরদিনই বেজোস ভারতে গেলেন। গতকাল দিল্লির রাজঘাটে মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধীর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানান তিনি। টুইটে সেই ভিডিও পোস্টও করেন। তার এ ভারত সফরের প্রথম দিনে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নেমেছে ব্যবসায়ীদের সংগঠন কনফেডারেশন অব অল ইন্ডিয়া ট্রেডারর্স (সিএআইটি)। গতকাল সংগঠনের সেক্রেটারি জেনারেল প্রবীণ খণ্ডেলওয়াল বলেন, দেশের ৩০০ শহরে সিএআইটি সদস্যরা বিক্ষোভ দেখাবেন। ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগনীতি ভাঙছে। এ নিয়ে তদন্তের জন্য অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমনের কাছে আবেদন জানানো হবে। 

গত বছরের শুরুতে আমাজান কেনার পরিকল্পনার কথা প্রকাশ করেছিলেন ভারতের রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রির চেয়ারম্যান মুকেশ আম্বানি। বছরের শেষদিকে আমাজানের সঙ্গে ১৭ হাজার ৩০০ কোটি রুপির ২৪টি বাণিজ্যিক লেনদেন করেছে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ। ভারতে আমাজান ডটকম কেনার ক্ষেত্রে মুকেশ আম্বানির পরিকল্পনাই বাস্তবায়িত হতে চলেছে বলে মত দিয়েছিলেন অনেক বাজার বিশ্লেষক। তাদের মতে, ধাপে ধাপে বিনিয়োগের মাধ্যমেই ভারতে আমাজনের স্বত্ব কিনে নিতে চাইছে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ। ই-কমার্স সাইট আমাজন কিনে নেওয়ার মাধ্যমে ভারতের বিশাল অনলাইন বিপণনের বাজারে প্রবেশ করতে চাইছে রিলায়েন্স। বাজার বিশেষজ্ঞ কুনাল আগরওয়ালের মতে, ছোট ছোট বিনিয়োগের মাধ্যমে কাজে দক্ষ কর্মীদের একটি দল তৈরি করতে চাইছে রিলায়েন্স।

তবে বেজোসের বড় বিনিয়োগের এ ঘোষণায় অনেকটা স্পষ্ট হয়ে গেছে যে, আমাজন ভারতের বাজারকে গুরুত্ব দিচ্ছে। তিনি গতকাল বলেছেন, ‘ভারত অন্যতম প্রধান উদীয়মান বাজার। ২১ শতক হতে যাচ্ছে ভারত শতক।’ তিনি বলেন, আমাজন আশা করছে, ২০২৫ সাল নাগাদ ভারতে ১০ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রপ্তানি করবে। এরই মধ্যে ভারতে পাঁচ দশমিক পাঁচ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ তারা।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..