বিশ্ব বাণিজ্য বিশ্ব সংবাদ

ভারতে করোনা সংকটেও লাগামহীন জ্বালানি তেলের দাম

শেয়ার বিজ ডেস্ক: করোনাভাইরাসের সংকটের কারণে এমনিতেই ভারতের অর্থনীতি ধুঁকছে। লকডাউনের কারণে চাকরি হারিয়েছেন বহু মানুষ। এর মধ্যে গণপরিবহন ব্যবস্থা ঠিকমতো চালু হওয়ার আগেই সরকারি-বেসরকারি প্রায় সব অফিসই খুলে যাওয়ায় কাজের জায়গায় যেতে হিমশিম খেতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। এ অবস্থায় দেশটিতে লাগাতার দেশে পেট্রোল-ডিজেলের দাম বাড়ায় বিপাকে পড়েছেন তারা।

এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, টানা তিন দিন দেশের মেট্রো শহরগুলোয় বেড়েছে জ্বালানির দাম। কলকাতায় পেট্রোলের দাম বেড়ে হয়েছে প্রতি লিটার ৭৪ দশমিক ৯৮ রুপি। পাশাপাশি ডিজেলের দাম প্রতি লিটারে বেড়ে হয়েছে ৬৭ দশমিক ২৩ রুপি। এদিকে কিছুদিন আগেই দাম বেড়েছে রান্নার গ্যাসেরও। তাই সব মিলিয়ে ঘরে-বাইরে বিরাট সমস্যার মুখে পড়েছে সাধারণ মানুষ।

জানা গেছে, আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত তেলের দাম বাড়ায় জ্বালানির দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে তেল কোম্পানিগুলো। গতকাল মঙ্গলবার সেজন্য ভারতেও পেট্রোলের দাম লিটারে ৫৪ পয়সা ও ডিজেলের দাম ৫৮ পয়সা করে বেড়েছে।

অভ্যন্তরীণ বাজারে মোট প্রয়োজনীয় তেলের প্রায় ৮০ শতাংশই বিদেশ থেকে আমদানি করে ভারত। যার ফলে আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত তেল এবং রুপি-ডলারের বিনিময় মূল্যের অদল বদলের সঙ্গে সঙ্গে ভারতের ঘরোয়া বাজারে খুচরো তেলের দাম পরিবর্তিত হয়। ভারতে দৈনিক ভিত্তিতে পেট্রোল, ডিজেল এবং সিএনজির মতো জ্বালানির মূল্য নির্ধারিত হয়। প্রতিদিন ভোর ৬টা থেকে বর্ধিত মূল্য কার্যকর হয়।

গত তিন মাসে আন্তর্জাতিক তেলের বাজারে চূড়ান্ত অস্থিরতা দেখা গিয়েছে। লকডাউন জারির পরপরই পেট্রোল এবং ডিজেলের দামে কোনো পরিবর্তন করেনি তেল কোম্পানিগুলো। ফলে এক সময় বিশ্ববাজারে অপরিশোধিত তেলের দাম রেকর্ড তলানিতে গিয়ে নামলেও এ ভারতে পেট্রোল এবং ডিজেল ব্যবহারকারীরা তার কোনো সুফল পাননি।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..