বিশ্ব সংবাদ

ভারতে বন্যায় ২৪৪ জনের প্রাণহানি

শেয়ার বিজ ডেস্ক: মৌসুমি বৃষ্টিপাত থেকে সৃষ্ট বন্যা ও ভূমিধসে ভারতজুড়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৪৪ জনে। দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কেরালায় জারি করা হয়েছে বন্যা সতর্কতা। রাজ্যটিতে এবারের বন্যায় এখন পর্যন্ত ৯৫ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার রাজ্য সরকার কেরালার বাসিন্দাদের সতর্ক করে বলেছে, আগামী ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টা পর্যন্ত টানা ভারী বর্ষণ হবে। কেরালার কিছু এলাকার বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। খবর: দ্য গার্ডিয়ান।
টানা ভারী বর্ষণের কারণে ভারতের চার রাজ্য ভয়াবহ বন্যার কবলে পড়েছে। রাজ্যগুলো হলো কেরালা, কর্ণাটক, মহারাষ্ট্র ও গুজরাট। ওই চারটি রাজ্যের ১২ লাখ মানুষ এখন গৃহহীন হয়ে পড়েছেন। তাদের বেশিরভাগই সরকার পরিচালিত রিলিফ ক্যাম্পে বসবাস করছেন।
গত বছর শতাব্দীর সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যার কবলে পড়ে কেরালা। ওই সময় বন্যায় ৪৫০ মানুষের মৃত্যু হয়। বন্যার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের ঘরবাড়িসহ সরকারি অবকাঠামোর মধ্যে রেলওয়ে ও সড়ক মেরামতের কাজ এখনও শেষ হয়নি। এবারের বন্যায় এখন পর্যন্ত কেরালায় ৯৫ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া আরও প্রায় ৫৯ জন নিখোঁজ রয়েছেন। কেরালা পুলিশ বুধবার ফ্রান্সভিত্তিক বার্তা সংস্থা এএফপিকে এ তথ্য জানিয়েছে। আরও বেশ কিছু মানুষের প্রাণহানির আশঙ্কা করা হচ্ছে সেখানে।
এছাড়া পাশের রাজ্য কর্ণাটকে বন্যায় ৫৮ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। বন্যাকবলিত ছয় লাখ ৭৭ হাজার মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়েছে সেখানকার রাজ্য সরকার। সরকারি কর্মকর্তারা বলছেন, কর্ণাটকের পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হয়েছে।
ভারতের পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য গুজরাট ও মহারাষ্ট্র মিলে এবারের বন্যায় ৯১ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া বন্যাকবলিত এলাকাগুলো থেকে লাখ লাখ মানুষকে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। সেখানে আরও মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা এখনও রয়ে গেছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..