এসএমই

ভিয়েতনামের এসএমই খাত

আসিয়ানভুক্ত দেশ ভিয়েতনাম। এ জোটের দেশগুলোর এসএমই খাতের বিশেষ ঝোঁক রয়েছে। আসিয়ান ব্লকে এ খাতের উন্নয়নে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা রয়েছে। সরকারি প্রণোদনা, উৎসাহ, কর্মপন্থা প্রভৃতি এসএমই শিল্পের বিকাশে সহায়তা করে।

#     জনশ্রুতি রয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতিতে ক্ষুদ্র ব্যবসার যেমন ভূমিকা, ভিয়েতনামের অর্থনীতিতে এসএমই খাতেরও একই ভূমিকা

#     ক্ষুদ্রতম, ক্ষুদ্র ও মাঝারি এ তিন পর্যায়ে বিভক্ত ভিয়েতনামের এসএমই খাত। মূলত মূলধনের ওপর ভিত্তি করে এ তিন ভাগে বিভক্ত করা হয়েছে

#     ক্ষুদ্রতম পর্যায়ে কৃষি, নির্মাণ ও ব্যবসা-বাণিজ্যে শ্রমিকের সংখ্যা ১০ কিংবা তারও কম

#     ক্ষুদ্র পর্যায়ে শ্রমিকের সংখ্যা ১০ থেকে ২০০। এ পর্যায়ে মূলধন সর্বোচ্চ ২০ বিলিয়ন ভিয়েতনামি ডং

#     মাঝারি পর্যায়ে ২০০ থেকে ৩০০ জন। ব্যবসায় মূলধনের পরিমাণ ২০ বিলিয়ন থেকে সর্বোচ্চ ১০০ ভিয়েতনামি ডং

#     ভিয়েতনামে এসএমইর নানা খাতে প্রায় চার লাখ প্রতিষ্ঠান রয়েছে

#     দেশটির ৫০ শতাংশ কর্মসংস্থান হয়েছে এ খাতে

#     মোট দেশজ উৎপাদনের ৪০ শতাংশ আসে এসএমই খাত থেকে

#     এসএমই খাতের উন্নয়নে সরকারের পাশাপাশি ভিয়েতনাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ভিসিসিআই), বিশ্বব্যাংক, এডিবি, জার্মানি ও ডেনমার্ক সহায়তা করে

#     দেশটির ব্যবসা-বাণিজ্যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে নিজটিফুড নিউট্রিশন অ্যান্ড ডেইরি, টিএইচপি বেভারেজ, ইয়েন ভিয়েত, মাসানফুড নামের এসএমইনির্ভর অনেক প্রতিষ্ঠান

#     এসএমই ডেভেলপমেন্ট কাউন্সিলের পরামর্শে দেশটির প্রধানমন্ত্রী এ খাতের উন্নয়নে সিদ্ধান্ত নেন। প্রাদেশিক পর্যায়ে ডিপার্টমেন্ট অব প্ল্যানিং অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট সরকারের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের নানা কর্মসূচি হাতে নেয়

#     কিছু নেতিবাচক পরিস্থিতি বিরাজ করছে ভিয়েতনামের এসএমই খাতে। যেমন বলা হয়, স্থানীয় কিংবা বিদেশি কোনো ব্যাংক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের উন্নয়নে তেমন কিছু করছে না। ব্যবসায়ীরা পরিবার, বন্ধ-ুবান্ধব অথবা পরিচিত মানুষের কাছ থেকে অর্থ নিয়ে ব্যবসা চালান।

তথ্যসূত্র: রিসার্চগেট

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..