বিশ্ব সংবাদ

ভোটকেন্দ্রের বাইরে সংঘর্ষ নিহত পাঁচ

পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচন

শেয়ার বিজ ডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গে চতুর্থ দফার বিধান সভার নির্বাচনে গতকাল শনিবার কুচবিহার জেলায় ৪৪টি আসনে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। বিধান সভার নির্বাচনে পরে আরও চার ধাপে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ২ মে ফলাফল ঘোষণা করা হবে। এদিকে, ভোটকেন্দ্রের বাইরে কুচবিহারে বিজেপি ও তৃণমূল কংগ্রেস সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে অন্তত পাঁচজন নিহত হয়েছে। খবর: এনডিটিভি, আনন্দ বাজার।

কুচ বিহারের শীতলকুচির জোড়পাটকির ১২৬ নম্বর বুথের বাইরে সংঘর্ষে জড়ায় প্রতিদ্বন্দ্বী দুই দলের সমর্থক ও কর্মীরা। তৃণমূল কংগ্রেসের দাবি নিহতরা সবাই তাদের কর্মী। কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে তাদের মৃত্যু হয়েছে বলেও দাবি করেছে রাজ্যের ক্ষমতাসীন দলটি। তৃণমূলের অভিযোগ বিজেপির হয়ে কাজ করছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। এ ঘটনার বিষয়ে প্রতিবেদন চেয়ে পাঠিয়েছে ভারতের নির্বাচন কমিশন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শীতলকুচির পাঠানটুলি এলাকায় প্রথমবারের মতো ভোট দিতে যাওয়া এক ব্যক্তিকে অজ্ঞাত বন্দুকধারীরা গুলি করে হত্যা করলে সংঘর্ষ শুরু হয়। এক পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ওই ব্যক্তিকে ৮৫ নাম্বার বুথ থেকে টেনে বের করে নিয়ে গুলি করে হত্যা করা হয়।

তৃণমূল কংগ্রেসের অভিযোগ এ হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যে ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপির হাত রায়েছে। তবে বিজেপির অভিযোগ নিহত ব্যক্তি তাদের ওই বুথের পোলিং এজেন্ট। আর তাকে হত্যার জন্য রাজ্যের ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেসকেই দায়ী করছে দলটি।

অমিত শাহের পদত্যাগ চান মমতা: এদিকে পশ্চিমবঙ্গের বিধান সভা নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রের বাইরে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলি চালানোর ঘটনায় ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের পদত্যাগ দাবি করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ব্যবহার করে ষড়যন্ত্র করছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। বিজেপির ভোটবাক্স ভর্তি করতে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ব্যবহার করা হচ্ছে বলেও দাবি করেন তিনি।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..