প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

মাও সেতুংয়ের সঙ্গে শি জিনপিংয়ের তুলনা

শেয়ার বিজ ডেস্ক : গণপ্রজাতন্ত্রী চীনের প্রতিষ্ঠাতা, বিপ্লবী, কবি ও রাজনৈতিক তাত্ত্বিক মাও সেতুংয়ের সঙ্গে বর্তমান প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের তুলনা করেছে দেশটির কমিউনিস্ট পার্টি। সংগঠনটি তাদের গঠনতন্ত্রে শির মতাদর্শ স্থান দেওয়ার পক্ষে ভোট দিয়েছে।

বিবিসির খবরে বলা হয়, ২০১২ সালে চীনের কমিউনিস্ট পার্টির নেতা (সাধারণ সম্পাদক) হওয়ার পর থেকে ধীরে ধীরে ক্ষমতা পাকাপোক্ত করেছেন শি জিনপিং।

কমিউনিস্ট পার্টির সম্মেলনে (কংগ্রেস) ‘শি জিনপিংয়ের চিন্তা’ লিপিবদ্ধ করার বিষয়ে সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত হয়। চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে দেশটির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক এই সম্মিলনীতে রুদ্ধদ্বার আলোচনা করেন পার্টির দুই হাজারের বেশি প্রতিনিধি।

এর আগে গত সপ্তাহে শুরু হয় চীনের কমিউনিস্ট পার্টির কংগ্রেস। এতে তিন ঘণ্টাব্যাপী বক্তব্য দেন চীনের প্রেসিডেন্ট ও পার্টির নেতা শি। সেই বক্তব্যে তিনি প্রথমবারের মতো ‘নতুন যুগে চীনা বৈশিষ্ট্যসংবলিত সমাজতন্ত্র’ ধারণা নিয়ে কথা বলেন।

শির ওই বক্তব্যের পর থেকে চীনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম ও দেশটির শীর্ষ কর্মকর্তারা তাঁর এই মতাদর্শকে ‘শি জিনপিংয়ের চিন্তা’ হিসেবে প্রচার শুরু করে দিয়েছে।

বিবিসির চীনবিষয়ক সম্পাদক ক্যারি গ্রেসি বলেন, পার্টির গঠনতন্ত্রে ‘শি জিনপিং চিন্তা’ যুক্ত করার মধ্য দিয়ে একটি বার্তা দেওয়া হলো। আর তা হলো শির সমালোচনার আগে চীনা কমিউনিস্ট পার্টির ভিত নড়াতে হবে বিরোধীদের।

এর আগেও বিভিন্ন নেতার মতাদর্শ গঠনতন্ত্রে যুক্ত করেছে চীনা কমিউনিস্ট পার্টি। তবে মাও সেতুং ও দেং জিয়াওপিংয়ের পর একমাত্র শির দর্শনকেই স্বতন্ত্র ‘চিন্তা’ হিসেবে আখ্যা দেওয়া হয়েছে।